চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনে বাংলাদেশের বড় প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত

আইসিসির নতুন এফটিপিতে আছে বেশ কয়েকটি বৈশ্বিক আসরের মাঝে আছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও। বিশ্বের বড় দলগুলোর জমজমাট টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আগামী আসরের আয়োজক হতে চায় বাংলাদেশ। নতুন খবর হল- চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির আয়োজক হতে মরিয়া প্রতিবেশি দেশ ভারতও।

সেক্ষেত্রে বিসিসিআই আগামী এফটিপি চক্রে ২০২৫ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিসহ তিনটি বৈশ্বিক ইভেন্ট আয়োজনের কথা ভাবছে। তবে, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সাথে দুটি বিশ্বকাপও আয়োজন করতে চায় তারা প্রভাবশালী বোর্ড বিসিসিআই।

আগামী এফটিপিতে আছে দুটি ওয়ানডে ও চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তবে এককভাবে বিশ্বকাপ আয়োজনের ক্ষেত্রে যে শর্ত আছে, তা পূরণ করা বাংলাদেশের জন্য একটু কঠিনই বটে। এশিয়ার দেশগুলোর সাথে যৌথভাবে বিশ্বকাপ আয়োজনে শামিল হওয়া যায় কি না তা ভেবে দেখছে বিসিবি। তবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি এককভাবেই আয়োজন করতে চায় বাংলাদেশের বোর্ড।

বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বিসিসিআইয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ২০২৫ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সাথে ২০২৮ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০৩১ ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য আমরা বিড করব। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ছোট টুর্নামেন্ট হলেও অনেক জনপ্রিয়। ভারতের উচিৎ ২-৩ বছরে একটি করে বৈশ্বিক ইভেন্ট আয়োজন করা। সেই লক্ষ্যে আমরা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজন করতে চাই।

এ বছর ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও করোনার কারণে আসরটি ভারতের আয়োজনে বসতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এছাড়া ২০২৩ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত হবে আগামী ওয়ানডে বিশ্বকাপ।