টানা ১৫ ম্যাচ অপরাজেয় আর্জেন্টিনা

চিলির বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আগে গোল করেও জিততে ব্যর্থ হয়েছিল লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। দ্বিতীয় ম্যাচেও আগে গোল করে লিড নেয় আর্জেন্টিনা। তবে আর গোল হজম করতে হয়নি তাদের। ম্যাচের ১৩ মিনিটে করা গোলেই হাসি মুখে মাঠ ছাড়ে মেসিরা।

টানা দুই ম্যাচে অপরাজিত থেকে টানা ১৫ ম্যাচে অপরাজেয় থাকলো মেসিরা। সবশেষ ১৫ ম্যাচ আগে আর্জেন্টিনা ম্যাচ হেরেছে ব্রাজিলের কাছে। যদিও এরপর ব্রাজিলের সাথে আরো একটি ম্যাচ খেলেছে আর্জেন্টিনা, সে ম্যাচে ১ গোলে জিতেছিলো লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা৷

আর্জেন্টিনা সর্বশেষ ম্যাচ হেরেছিলো আজকের দিন থেকে কমপক্ষে ৭১৭ দিন আগে। ক্যালেন্ডারের পাতায় যে সময়টা ২ বছর থেকে ১৪ দিন কম। অর্থাৎ ১ বছর ১১ মাস ১৬ দিন আগে সর্বশেষ ম্যাচ হেরেছিলো আর্জেন্টিনা। মিনিটের হিসাবে যা দেড় লাখ, আর সেকেন্ডের হিসাবে ৬২ লক্ষ সেকেন্ড।

এই ৭১৭ দিনে আকাশি নীলরা ম্যাচ খেলেছে ১৫টি। ১৫ টির মধ্যে ৮ টি ম্যাচে জিতেছে আর্জেন্টিনা, বাকি ৭ টি ম্যাচে ড্র করেছে মেসিরা৷ এই সময়ে আর্জেন্টিনা জার্মানি, ব্রাজিল, কলম্বিয়া,মেক্সিকোর মত দলের সাথে ম্যাচ খেললেও পা হড়কায় নি একবারও।

অ্যাওয়ে ম্যাচে ২০১৯ সালে ১০ নভেম্বরে জার্মানির সাথে ২-২ গোলে ড্র করেছিলো আর্জেন্টিনা। পাঁচদিন পর ব্রাজিলকে প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। এই সময়ে আর্জেন্টিনা ম্যাচ জিতেছে উরুগুয়ে, পেরু, বলিভিয়া, ইকুয়েডর, ব্রাজিল, মেক্সিকো ও চিলির বিপক্ষে।

গ্রুপপর্ব প্রায় নিশ্চিত আর্জেন্টিনার। গ্রুপ পর্ব শেষ করবার পর মুল পরীক্ষা দিতে হবে আর্জেন্টিনার। লিওনেল মেসির একটি আন্তর্জাতিক শিরোপা জয়ের চাপের কারনে তুলনামূলক বেশি চাপে আছে আর্জেন্টিনাও। তবে লিওনেল মেসির কারনে আর্জেন্টিনাকেও ফেভারিট ভাবা হচ্ছে এবারের কোপা আমেরিকাতে।