তাওহিদের সুমহান বাণী ছড়িয়ে পড়ুক পার্বত্য অঞ্চলের পাহাড়ে পাহাড়েঃ আজহারী

দেশের জনপ্রিয় ইসলামি বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী। ইসলামি আলোচক হিসেবে তিনি জনপ্রিয় এবং একইসাথে সমালোচিত। বিভিন্ন বক্তব্যে নিজেকে মধ্যমপন্থী ইসলামী আলোচক বলে দাবি করেন তিনি।

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে ওমর ফারুক (৪০) নামে এক নওমুসলিমকে শুক্রবার (১৮ জুন) রাত ৯টার দিকে রোয়াংছড়ি সদর ইউনিয়নের তুলাছড়ি আগাপাড়া এলাকায় সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করেছে। এশারের নামাজ পড়ে বাসায় ফেরার সময় সন্ত্রাসীরা গুলি করে তাকে হত্যা করে।

আজ সোমবার (২১ জুন) নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে ইসলামি বক্তা মিজানুর রহমান আজহারী যা লিখেছেন তা হুবুহু পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

ফেসবুকে আজহারী লেখেন, পাহাড়ী দ্বা’য়ী— শহিদ ওমর ফারুক ত্রিপুরা। হলদে দাঁতের মিষ্টি হাসিতে ইমানি আভা যেন ঠিকরে পড়ছে। আল্লাহ তা’আলা তাকে জান্নাতের মেহমান বানিয়ে নিন।

পাহাড়ী এলাকায় খৃ/স্টা/ন মিশনারির যেমনি ধর্ম প্রচারের অধিকার আছে, মুসলিমদেরও অধিকার আছে শান্তিপূর্ণভাবে ইসলাম প্র্যাকটিস ও প্রচারের। ইসলাম গ্রহন, ইসলাম প্রচার এবং মসজিদ নির্মাণ কি অপরাধ? কিন্তু এই অপরাধেই জীবন দিতে হয়েছে ওমর ফারুক ত্রিপুরাকে। এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবী করছি।

পার্বত্য অঞ্চলে শান্তি প্রতিষ্ঠায় প্রশাসনের সজাগ দৃষ্টি কামনা করছি। দেশের চারপাশে সকল পাহাড়ী এলাকায় স্থায়ী সেনা ক্যাম্প থাকা প্রয়োজন। এসব অঞ্চলে মুসলিমদের দাওয়াতি এক্টিভিটিও বাড়াতে হবে। তাওহিদের সুমহান বাণী ছড়িয়ে পড়ুক পার্বত্য অঞ্চলের পাহাড়ে পাহাড়ে।