পূজা করতে আসা শিশুকে শ্লীলতাহানি, গ্রামবাসীর কাছে আটক পুরোহিত

যজমানের বাড়িতে পূজা করতে এসেছিলেন ৭ বছরের এক শিশুকন্যা। আর তাকে শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ উঠেছে পুরোহিতের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুরোহিতকে আটকে রেখে সালিশি সভা বসানো হয় এলাকায়। ভারতের পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন থানার তুরকা অঞ্চলে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা গেছে, পুরোহিতকে আটকের পর শাস্তি হিসেবে তার গলায় টিন বেঁধে ও গলায় পোস্টার ঝুলিয়ে গ্রামজুড়ে ঘোরায় এলাকাবাসী। পরে বিষয়টি জানতে পেরে পুরোহিতকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। ভুক্তভোগী শিশুটি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এদিকে পুরোহিতের এমন কাণ্ডে তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেছেন এলাকার বিধায়ক বিক্রম প্রধান। এছাড়া এলাকার সাধারণ মানুষ পুরোহিতের কঠোর শাস্তির দাবিও তুলেছেন।

বুধবার (২৩ জুন) স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দাতন-২ ব্লকের তুরকা অঞ্চলের একটি গ্রামে একজনের বাড়িতে শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের বাৎসরিক কাজের জন্য এসেছিলেন ওই পুরোহিত। পূজার কাজের ফাঁকে সবার আড়ালে যজমান বাড়ির এক শিশুকন্যার সঙ্গে পুরোহিত অশ্লীলতা করেন।

ভুক্তভোগী শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে দাঁতন থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) রাতে অভিযুক্ত পুরোহিতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সূত্র: জি-নিউজ