ফেসবুকে আছে জাকির নায়েকের পেইজ, মুছে ফেলা হচ্ছে হিন্দু পেজ

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ভাবাবেগে আঘাত করেছে বিশ্বের বহুল জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। সাম্প্রদায়িক বিভেদ তৈরির চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলে নেটিজেনরা ‘ফেসবুক’কে বয়কটের জন্য ডাক তুলেছেন। মাইক্রো ব্লগিং সাইট টুইটারে এখন ট্রেন্ডিং হয়ে গেছে ‘হ্যাশট্যাগ বয়কট ফেসবুক’ এবং ‘ব্যান এফবি ইন ইন্ডিয়া’। এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের।

নেটিজেনদের একাংশ জানাচ্ছে, সনাতন সংস্থা নামের ফেসবুকে একটি পেজ ছিল। পেজটি থেকে মূলত হিন্দু ধর্মের প্রচার, ধর্মীয় বার্তা দেয়া হত। হঠাৎ করেই কোনো সতর্কতা ছাড়াই পেজটি সরিয়ে ফেলে ফেসবুক। এমনকি বিজেপি বিধায়ক রাজা সিংয়ের ফেসবুক পেজও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। জাকির নায়েকের পেজ ঠিকই থাকছে ফেসবুকে। অথচ হিন্দুদেরই বারবার টার্গেট করা হয়। এ কারণেই একের পর এক টুইটে ফেসবুক বয়কট করার জন্য ডাক দিয়েছেন তারা।

এদিকে তথ্য-প্রযুক্তি নীতি ইস্যুতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে সশরীরে উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশ দিয়েছে সাংসদ শশী থারুরের নেতৃত্বাধীন তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পর্কিত সংসদের স্থায়ী কমিটি। নেটিজেনদের অধিকার রক্ষার পাশাপাশি এ প্ল্যাটফর্মের যেন অপব্যবহার না হয় এ জন্য ফেসবুকের নিয়ম-নীতি খতিয়ে দেখছে কমিটি।

তবে ফেসবুক প্রথমে করোনার কথা উল্লেখ করে ভার্চ্যুয়ালি উপস্থিত থাকার প্রস্তাব জানিয়েছিল। কিন্তু তা খারিজ করে দিয়ে সশরীরে উপস্থিত থাকার কঠোর বার্তা দেয় কমিটি।