সুনামগঞ্জে মেছোবাঘ মেরে এলাকাবাসীর উল্লাস

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওরের সংরক্ষিত বন থেকে একটি মেছোবাঘকে কুচ দিয়ে ঘাঁ মেরে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে স্থানীরা। মেছোবাঘটির দৈর্ঘ্য ৩ ফুট ও প্রস্থ ২ ফুটের বেশি।

গতকাল মঙ্গলবার (৮ জুন) তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের টাঙ্গুয়ার হাওরের গোলাবাড়ি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, গত এক সপ্তাহ ধরে তাহিরপুর উপজেলার টাঙ্গুয়ার হাওরে গোলাবাড়ি গ্রামে একটি বাঘ আছে বলে চারদিকে আতংকে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে হাওর পাড়ের শিশুরা মেছোবাঘের আক্রমণের ভয়ে ঘর থেকে বের হতে পারত না। এই কারণে স্থানীয়রা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কুড়াল, কুচ, লাঠি নিয়ে মেছোবাঘটিকে খুঁজতে থাকে। এক পর্যায়ে গোলাবাড়ি গ্রামের একটি হাওরে বাঘটিকে দেখা মাত্র প্রথমে মাছ মারার কুচ দিয়ে ঘাঁ মেরে আহত করে আটক করা হয়। পরে কুড়াল, লাঠি, দিয়ে মাথায় ও বুকে আাঘাত করে পিটিয়ে হত্যা করে এলাকাবাসী।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেছোবাঘ মারার ও আনন্দ উল্লাসের মিছিলের ভিডিও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লেও এ পর্যন্ত কিছু জানতে পারেনি বনবিভাগ। পরে নিহত মেছো বাঘকে নদীতে ফেলে দিয়েছে বলে জানান স্থানীয় এলাকাবাসী।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রায়হান কবির বলেন,এ বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক। এ ব্যাপারে বনবিভাগকে অবগত করা হয়েছে। এছাড়া প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে জানান তিনি।