আফগানিস্তানে ইসলামি ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চাই: তালেবান

আফগানিস্তানের সংকট সমাধানে রাজনৈতিক সমাধানের ওপর গুরুত্বারোপ করে তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা মোল্লা হিবতুল্লাহ আখন্দজাদা বলেছেন, আফগানিস্তানে ইসলামি ব্যবস্থা, শান্তি এবং নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা যেকোনো সুযোগ গ্রহণ করব। আমরা সংলাপের মাধ্যমে সমাধান চাই কিন্তু আফগান সরকার শান্তি আলোচনার নামে সময় নষ্ট করছে।

তোলো নিউজের খবরে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানে শান্তি ফেরাতে তালেবান ও সরকারের প্রতিনিধিরা কাতারের রাজধানীর দোহায় বৈঠকে বসেছেন। ঈদ বার্তায় তালেবান বিভিন্ন জেলা দখলের কথা স্বীকার করেছে। তবে তারা রাজনৈতিক সমাধান সমর্থন করেন বলেও উল্লেখ করেছেন তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা।

অন্য দেশগুলোকেও আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার আহ্বান জানিয়ে মোল্লা হিবতুল্লাহ বলেন, বহির্বিশ্বের সঙ্গে তালেবান দৃঢ় ও ভালো কূটনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সম্পর্ক চায়। আফগানিস্তানে বসে কোনো গোষ্ঠী প্রতিবেশী কোনো দেশের নিরাপত্তার হুমকি হতে পারবে না। তালেবান আফগানিস্তানে দূতবাস, বিনিয়োগকারী ও বিদেশি সংস্থাগুলোকে রক্ষা করতে কাজ করবে।

মোল্লা হিবতুল্লাহ আরও বলেন, আমরা আফগানিস্তানের স্বার্থ এবং ইসলামী আইনের মধ্যে থেকে বাক-স্বাধীনতা রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সাংবাদিকদের এই দুইটি বিষয় মাথায় রেখে কাজ করা উচিত।