কোপা চ্যাম্পিয়নঃ আর্জেন্টিনা ১৪, ব্রাজিল ৯ বার

কোপা আমেরিকা দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের একটি নিয়মিত ফুটবল প্রতিযোগিতা। এটি সবচেয়ে পুরনো আন্তর্জাতিক মহাদেশীয় ফুটবল প্রতিযোগিতা। ফিফা বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতার আগে এ টুর্নামেন্ট চালু হয়।

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ফুটবল। ৯০ মিনিটের খেলায় খেলোয়াড় এবং দর্শকদের মধ্যে বেশ উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। আর এই খেলা মানেই রেকর্ড ভাঙ্গার প্রতিযোগিতা। একজন খেলোয়াড়ের রেকর্ড ভেঙ্গে অন্য এক খেলোয়াড় গড়বে নতুন রেকর্ড, সৃষ্টি হবে নতুন ইতিহাস।

নতুন খবর হচ্ছে, কোপা আমেরিকার সর্বোচ্চ সফলতার দিকে এগিয়ে রয়েছে উরুগুয়ে। এরপর দ্বিতীয় সফলতম আর্জেন্টিনা আর তৃতীয় হচ্ছে ব্রাজিল। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৫ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা ১৪ বার আর ব্রাজিল ৯ বার। ইতোমধ্যে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল পৌঁছে গেছে সেমিফাইনালে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া ও পেরু। ২৭ বছর ধরে আর্জেন্টিনা কোপার শিরোপা জিততে পারছে না। গত ১৯৯৩ সালের কোপা আমেরিকার সেমিতে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ছিল কলম্বিয়া।

কোপায় দ্বিতীয়বারের মতো টানা ৪ আসরের সেমিফাইনালে উঠল আর্জেন্টিনা। এর আগে দলটি ১৯৮৭, ১৯৮৯, ১৯৯১ ও ১৯৯৩ সালের আসরে টানা সেমিফাইনালে খেলেছিল। ১৯৮৭ সালের আসরে চতুর্থ হয়ে তাদের বিদায় নিতে হয়। পরের আসরে কিছুটা উন্নতি ঘটিয়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করে আর্জেন্টিনা। দুই বার ব্যর্থ হলেও ১৯৯১ ও ১৯৯৩ সালের আসরে তার শিরোপা জিতে নেয়। ১৯৯৩ সালের পর আর্জন্টিনা আর কোপার শিরোপা জিততে পারেনি।

কোপার পরিসংখ্যান বিবেচনায় নিঃসন্দেহে বলা যায় যে, কোপায় ব্রাজিলের চেয়ে আর্জেন্টিনাই বেশ সফল দল। বিশ্বসেরা মেসির এবার নতুন সুযোগ এলো বড় কোন ট্রফি ঘরে তোলার।