জাস্টিন ট্রুডো বললেন কানাডা শান্তির দেশ

পহেলা জুলাই ছিলো কানাডার জন্মদিন। দেশটির ১৫৪তম জন্মদিন খুব সীমিত এবং সংক্ষিপ্তভাবেই পালিত হলো। দিনটি ছিলো সরকারি ছুটির দিন। তবু করোনার কারণে আগেও মতো মনোমুগ্ধকর শোভাযাত্রা, প্যারেড, হইচই, নাচ-গানের নানান অনুষ্ঠানের আয়োজন ছিলোনা, ছিলোনা সন্ধ্যায় মুখরিত হয়ে উঠে আকাশজুড়ে আতশবাজির ফোয়ারা।

এক সময় বলা হতো, ব্রিটিশ রাজত্বের সূর্যাস্ত নেই, ব্রিটিশের পূর্ব-পশ্চিম একাকার। সেই সূত্রে ব্রিটিশদের ঔপনিবেশিকতা ছিল কানাডাতেও। নিরীহ কানাডিয়ানদের প্রথমে ফ্রান্স পরে ব্রিটেন শাসন করেছে দীর্ঘ সময়। কানাডার ইতিহাসে অনেক রক্তাক্ত যুদ্ধ আছে, যুদ্ধের স্মৃতি আছে। বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবসের মতো দেশটির বিজয়ের ক্ষণ হচ্ছে- ১৮৬৭ সালের পহেলা জুলাই। বৃটিশ কলোনি থেকে মুক্তি অর্জন করে আর ১৯৭১ সালে বহুজাতিক সংস্কৃতির প্রবর্তন করে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পিয়ারে ট্রডো দেশটিকে দেন নতুন মাত্রা।

আজ এক শুভেচ্ছা বার্তায় কানাডার জন্মদিন উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমাদের দেশ শান্তির দেশ। এখানে অন্যায়, অবিচার, বর্ণবাদ, সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই। আসুন, আমরা সবাই মিলে বিশ্বের এই সেরা দেশটিকে আরও সুন্দর করে নির্মাণ করি।