আইপিএল নয়, আগে দেশের খেলাই খেলবেন ক্রিকেটাররা: আকরাম খান

এলপিএলের দ্বিতীয় আসর হবে আগামী ৩০ জুলাই থেকে ২২ আগস্ট পর্যন্ত। কিন্তু আগস্টের ২ তারিখ থেকে ৮ তারিখ পর্যন্ত আবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশের। তবে কি বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা এলপিএল খেলবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় থেকেই যায়।

এ বিষয়ে বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেছেন, আগে দেশের খেলাই খেলবেন ক্রিকেটাররা। পরে সুযোগ থাকলে বিদেশি লিগগুলোতে (আইপিএল) যাবেন তারা।

গতকাল শনিবার আকরাম খান আরও বলেন, এলপিএলের শুরুতে বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা থাকতে পারবে না। কারণ তখন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আমাদের সিরিজ রয়েছে। আমাদের আরও সম্ভাব্য সিরিজ আছে। তবে মাঝে কিছু ফাঁকা সময় আছে। তারা ঐসময়ে গিয়ে এলপিএল খেলতে পারবে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) দেয়া নতুন চুক্তিপত্রের শর্ত মেনে, সবার আগে দেশের ক্রিকেটকেই বেছে নিয়েছেন জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তির বিবেচনায় থাকা সবাই জানিয়েছেন, বিদেশি লিগে খেলার সুযোগ এলেও, জাতীয় দলে খেলার বদলে সেখানে যাবেন না তারা।

প্রসঙ্গে, নতুন কেন্দ্রীয় চুক্তির জন্য সম্ভাব্য ২২ ক্রিকেটারের কাছ থেকে তাদের প্রাধান্য তালিকা নিয়ে ফেলেছে বিসিবি। দেশের সব ক্রিকেটাররা তিন ফরম্যাটেই খেলবেন বলে জানান তিনি। বাংলাদেশের খেলার সঙ্গে সাংঘর্ষিক সূচি হলে অন্য কোনো লিগে যাবেন না সাকিব-তামিমরা।