ফাইনালে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল মাঠে নামার আগেই মাঠে নামছে পুলিশ

ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে কোপার ফাইনালে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। এদিকে ম্যাচটি ঘিরে সমর্থকদের মধ্যেও বেশ উত্তেজনা বিরাজ করছে। বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার সমর্থকদের মধ্যকার সংঘাতও হয়েছে। ফলে ফাইনাল ম্যাচ ঘিরে জেলা পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হচ্ছে।

আজ শনিবার (১০ জুলাই) সকাল থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুলিশের পক্ষ থেকে করোনাকালে জনসমাগম ও খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘাত রুখতে মাইকিং করে সতর্কতামূলক প্রচারণা শুরু হয়েছে। জেলা শহর ও উপজেলায় অটোরিকশা, সিএনজি ও পিকআপ যোগে মাইকিং করতে দেখা গেছে।

সদর মডেল থানার ওসি এমরানুল ইসলাম বলেন, সদর মডেল থানাধীন ১৫টি বিটের কর্মকর্তারা মাইকিং শুরু করেছে। বাইরে প্রজেক্টরে গণজমায়েত হয়ে খেলা দেখা যাবে না, বাসায় বসে খেলা দেখতে হবে। এছাড়া খেলা পরবর্তী কোনো বিজয় মিছিলও করা যাবে না।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) বলেন, কোপা আমেরিকার খেলা নিয়ে এরই মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাল্টাপাল্টি হামলার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ অতিরিক্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে। ফাইনাল খেলার দিন ভোর ৫টা থেকে মাঠে থাকবে পুলিশের বিশেষ টিম। এছাড়া জেলার ১১৬টি বিটে চারজন করে কাজ করবে। পাশাপাশি গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আমরা বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান বলেন, লকডাউনের কঠোর বিধিনিষেধ সবাইকে মানানোর জন্য পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। কাউকে গণজমায়েত করতে দেয়া হচ্ছে না। এরমধ্যে আবার কোপা আমেরিকার খেলা। খেলাকে কেন্দ্র করে সমর্থকরা যেন গণসমাগম করতে না পারে এবং সংঘাতে জড়াত না পারে সে জন্য পুলিশকে তৎপর থাকার জন্য বলা হয়েছে।

আর্জেন্টিনার গণমাধ্যমে বলা হয়, কোপা আমেরিকা ফাইনালের ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচকে সামনে রেখে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত একটি অঞ্চলে জনসমাগম নিষেধ করেছে পুলিশ। স্থানীয় সমর্থকদের মধ্যে সংঘাতের কারণে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।