ফুটবলকে বাঁচাতে সালাউদ্দিনের পদত্যাগ চাইলেন ব্যারিষ্টার সুমন

ফুটবল একটি দলগত খেলা। এটি বৈশ্বিকভাবে ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয় খেলা। এটি আন্তর্জাতিক ফুটবল ফেডারেশন (ফিফা) কর্তৃক পরিচালিত ক্রীড়ার আনুষ্ঠানিক নাম। কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডায় খেলাটি সকার নামে পরিচিত। দেশের ফুটবল নিয়ন্ত্রন করে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

দেশীয় ফুটবলকে বাঁচাতে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সভাপতি সালাউদ্দিনের পদত্যাগ চাইলেন ব্যারিষ্টার সুমন।

একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে টক শো তে উপস্থিত ছিলেন অনলাইনে আব্দুস সালাম মুর্শেদী ও সঞ্চালক, তাবিথ আওয়াল, ব্যারিষ্টার সুমন উপস্থিত ছিলেন। তাঁদের উদ্দেশ্যে ব্যারিষ্টার সুমন বলেন, এদেশের ফুটবল ফেডারেশনকে আর কত নিম্ন মানের করে নিলে সালাউদ্দীন আর সালাম মুর্শেদী সাহেবরা লজ্জা পাবে! ফুটবল ফেডারেশনকে কতটা ধ্বংস করলে সালাহউদ্দিন সাহেব পদত্যাগ করবেন?! তারা ফুটবলকে শশুর বাড়ী বানিয়ে ফুটবলকে ধ্বংস করছে। তারা নিজেরা নিজেদের রাস্তা তৈরী করছে ফুটবল নিয়া কেউ ভাবে না বলে অভিযোগ করেন তিনি।

জাতীয় ফুটবল মাঠের চেয়ে গ্রামের ফুটবল মাঠে লোক কেন বেশী হয়? এ বিষয়ে ব্যারিষ্টার সুমন বলেন, দেখুন, লকডাউন বাফুফের জন্য আশীর্বাদ, তারা বলে আমরা স্বাস্থ্যবিধির কারণে মাঠে কাউকে ডুকতে দিচ্ছি না। কিন্তু সত্যিটা হচ্ছে সালাউদ্দীন আর সালাম মুর্শেদী সাহেবদের জন্য মাঠে কেউ আসে না। গ্রামে সবার কাছ থেকে টাকা তুলে তাঁরপর ফুটবল খেলা আয়োজন করা হয় বাফুফে থেকে টাকা নিয়ে নয়। তারা নিজ থেকে খেলা দেখতে আসে আর আনন্দ পায়।

ব্যারিষ্টার সুমন আরও বলেন, আমরা নিজেরাই নিজ দেশের ফুটবলকে ধ্বংস করছি কারণ আমরা নাইজেরিয়ার মত দেশ থেকে ফুটবলারদের ভাড়া করে আনছি এবং দেশীয় ফুটবলারদের বাদ দিয়ে তাদেরকে নাগরিত্বও দিচ্ছি। কথায় আছে, ফুটবলাররাই ফুটবলারদের ধ্বংস করে।

এর আগে ফেসবুকে ব্যারিষ্টার সুমন লেখেন, বঙ্গবন্ধুর নামে স্টেডিয়াম, ইতিহাস ঐতিহ্যে ঘেরা। অথচ পৃথিবীর কোথাও এমন ফুটবল মাঠ আছে কিনা তা আমার জানা নাই। মনে হচ্ছে গরু হাল চাষ করছে। এদেশের ফুটবল ফেডারেশনকে আর কত নিম্ন মানের করে নিলে সালাউদ্দীন আর সালাম মুর্শেদী সাহেবরা লজ্জা পাবে! ফুটবল ফেডারেশনকে কতটা ধ্বংস করলে সালাহউদ্দিন সাহেব পদত্যাগ করবে?