মাহমুদউল্লাহ আমাকে দেয়া কথাও রাখেননি: পাপন

টেস্টের অভিজাত ফরম্যাট থেকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের অবসরে যাওয়ার গুঞ্জন রটেছিল এবার সেটি সত্য রূপে ধরা দিলো। টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় বলে দিলেন মাহমুদউল্লাহ। টেলিভিশন সম্প্রচারেও বাংলাদেশ দলের সিনিয়র ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহর অবসরের কথা নিশ্চিত করেছেন ধারাভাষ্যকাররা। হারারে টেস্টের পঞ্চম দিন মাঠে নামার আগে ‘গার্ড অফ অনার’ দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সতীর্থরা।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেছেন, কাল রাত সাড়ে ১১টার দিকে ও (মাহমুদউল্লাহ) আমাকে একটা টেক্সট পাঠিয়েছে। তাতে সে লিখেছে সে অবসর নিতে চায়। এ ব্যাপারে আমার অনুমতি চাচ্ছে। কিন্তু আমি তাকে কোনো রিপ্লাই দিইনি। এরপর তো আজ সকালে টিভিতে দেখলাম সে গার্ড অব অনার নিচ্ছে।

নাজমুল হাসান জানান, ও আমাকে বলেছে সে আর টেস্ট খেলতে চায় না। এই টেস্টের পর টেস্ট থেকে অবসর নিতে চায়।আমি তাকে বলেছি যে, সেটা এভাবে কেন? তুমি আগে ওয়ানডে, টি–টোয়েন্টি সিরিজ খেলে দেশে ফিরে আস। আমরা কথা বলি। প্রয়োজনে তুমি দেশে এসে ঘোষণা দাও। লাগলে আমরা তোমার জন্য একটা বিদায়ী টেস্টের আয়োজন করব কিন্তু সে তো আমার কথা শুনল না!

মাহমুদউল্লাহ তাঁর কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। কিন্তু কেন তিনি হঠাৎ এই সিদ্ধান্ত নিলেন, সে ব্যাপারে বোর্ড সভাপতিকেও নাকি কিছু বলেননি। ওকে আমি জিজ্ঞেস করেছি, রাগটা কার ওপর? কেন হঠাৎ এটা করতে গেলে? তুমি তো লিখিত দিয়ে গেছ টেস্ট খেলবে!” সে আমার কোনো কথারই জবাব দেয়নি বলে জানান বিসিবি প্রধান।

কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সঙ্গে মাহমুদউল্লাহর একটা দূরত্ব তৈরি হওয়ায়, কোচের ওপর রাগ থেকেই এমন সিদ্ধান্ত তাঁর। কিন্তু এ বিষয়ে একমত নন বিসিবি সভাপতি। সূত্রঃ প্রথম আলো