স্বয়ংক্রিয় মেশিনে ২০ মিনিটে পবিত্র কাবা শরীফের ছাদ পরিষ্কার

প্রানঘাতী করোনার কারণে এবার হজ ব্যবস্থাপনায় প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এর অংশ হিসেবে স্বয়ংক্রিয় মেশিনের সাহায্যে পবিত্র কাবা শরীফের ছাদ পরিষ্কার করা হয়েছে।

বিদেশি সংবাদমাধ্যমের সূত্রে জিয়ো নিউজ উর্দূ জানিয়েছে, এ বছর হজের প্রস্তুতি হিসেবে কাবার ছাদ পরিষ্কার করার জন্য স্বয়ংক্রিয় মেশিন এবং রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে খুব অল্প সময়েই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হয়েছে। স্বয়ংক্রিয় মেশিনের কল্যাণে মাত্র ২০ মিনিট সময়ে কাবা শরীফের ছাদ পরিষ্কারের কাজটি সম্পন্ন করা হয়েছে। শতাধিক সৌদি স্বেচ্ছাসেবী ও হারামাইন প্রশাসনের কর্মকর্তারা এই কাজে অংশ নিয়েছেন।

চলতি বছর হজে শুধুমাত্র ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সীরা অংশ নিতে পারবেন। ১৮ বছরের নিচে এবং ৬০ বছরের ওপরে কেউ অংশ নিতে পারবেন না।

করোনা বিশ্বে এই প্রথমবারের মতো ডিজিটাল হজের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি আরব। দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মহামারির কারণেই লোকবলের পরিবর্তে হজ ব্যবস্থাপনায় প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রাধান্য দিচ্ছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এর অংশ হিসাবে এবারের হজে হাজিদের ফতোয়া ও দিক নির্দেশনা দেবে রোবট। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হলো, হাজিদের উদ্দেশ্যে ইলেকট্রনিক কুরআন পাঠ করে শোনাবে রোবট।

এছাড়া হাজিদের গতিবিধি ও চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ কম্পিউটার সংযোগের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হবে। সব হাজি যাতে সময়মতো তাদের হজের বিভিন্ন ইবাদত সময়মতো সঠিকভাবে পালন করতে পারেন সেজন্য রোবটগুলো দিনরাত নির্দেশনা দিয়ে যাবে। হজ শেষে হাজিদের নিরাপদে দেশে ফিরতে সঠিক যাতায়াত নির্দেশনা দেবে রোবট। এ জন্যে সব হাজির হজ পালনে নির্দিষ্ট সময়সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।