জাতীয় দলে কেন সুযোগ পান না, এসব নিয়ে আর চিন্তা করেন না কায়েস

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে কায়েস অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, দুই বছর ধরে জাতীয় দলের বাইরে ইমরুল কায়েস। অতীতে দল থেকে বাদ পড়া নিয়ে চিন্তিত হলেও এখন আর এসব নিয়ে ভাবেননা তিনি। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবেই চিন্তা-ভাবনা করতে চান কায়েস।

ওয়ানডেতে ২০১৮-এর বছরটা বেশ ভালো কেটেছিল অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ইমরুল কায়েসের। ঘরের ও বিদেশের মাটিতে মিলিয়ে ঐ বছরে ৮টি ম্যাচ খেলেন তিনি। এই ৮ ম্যাচে ৬২.২৮ গড়ে ৪৩৬ রান করেন কায়েস। তার মধ্যে ছিল দুটো সেঞ্চুরিও। জিম্বাবুয়ে সিরিজে তো রেকর্ড পরিমাণ রানও করেছিলেন।

তবে পরের সিরিজে- ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ভালো করতে না পারায় ওয়ানডে দল থেকে বাদ পড়েন তিনি। তারপর আর এই ফরম্যাটে সুযোগ হয়নি তার। বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে দল থেকে কেন বাদ পড়েছেন সেটির কারণ জানেন না বললেও, এখন আর এসব নিয়ে আফসোস করেন না এই অভিজ্ঞ ওপেনার। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে নিজের কাজটা আগে করতে চান তিনি। বিডিক্রিকটাইমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন,

“দেখুন, আমি আসলে এভাবে চিন্তা করি না। কারণ আমি একজন পেশাদার ক্রিকেটার, সেভাবেই চিন্তা করে ক্রিকেট খেলতে চাই। যেখানেই খেলি না কেন ভালো পারফর্ম করতে চাই, বাকিটা পরের বিষয়। যদি আমি ভালো খেলতে থাকি অবশ্যই একটা সুযোগ আসতেও পারে। আমি আসলে এসব নিয়ে এখন আর চিন্তা করি না যে কেন সুযোগ পাচ্ছি না বা আমাকে কেন নেওয়া হচ্ছে না।”

তিনি আরও যোগ করেন, “আমি আমার কাজটা আগে করার চেষ্টা করি। যেহেতু অনেকদিন আমরা ঐভাবে ক্রিকেট খেলতে পারিনি। আগের মতো সিচুয়েশন আর নেই। করোনার পর থেকে সবকিছু পরিবর্তন হয়েছে। যে কারণে যথেষ্ট ক্রিকেট আমরা খেলতে পারছি না।”