দ্বিতীয় বা তৃতীয় হতে বার্সার জার্সি পরিনি : পিকে

নিঃসন্দেহে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। ৯০ মিনিটের এই খেলায় খেলোয়াড় এবং দর্শকদের মধ্যে বেশ উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। আর খেলা মানেই রেকর্ড ভাঙ্গার প্রতিযোগিতা। একজন খেলোয়াড়ের রেকর্ড আরেক খেলোয়াড় ভেঙ্গে দিয়ে নতুন রেকর্ড গড়বে, সৃষ্টি করবে নতুন এক ইতিহাস।

নতুন খবর হচ্ছে, এই তো কিছুদিন আগেই বার্সেলোনা ছিল স্প্যানিশ লিগের প্রতাপশালী দল। কারণ সেই দলে ছিলেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস এবং নেইমাররা। গত তিন বছরে এই তিন তারকাকে হারিয়ে কাতালান ক্লাবটি এখন বেকায়দায় পড়ে গেছে। তাদের আক্রমণে কোনো ধার নেই। খেলায় কোনো ছন্দ নেই। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে কাদিসের মাঠ থেকে ১ পয়েন্ট তুলতেই ঘাম ছুটে গেছে। এমন কঠিন সময়ে ঘুরে দাঁড়ানোর ডাক দিলেন জেরার্ড পিকে।

কাদিসের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে এক সাক্ষাতকারে পিকে বলেছেন, ‘সবাই জিততে চায়। এখনকার পরিস্থিতি মোকাবেলার অনেক উপায় আছে। আমরা সবাই কেবল অভিযোগ করতে পারি অথবা কাজ করে যেতে পারি। আর খেলোয়াড়রা এখানে কাজ করতেই এসেছে। দুইভাবে দেখার দরকার নেই। আমরা সবাই প্রেসিডেন্ট ও কোচের পাশে আছি। ক্লাব নিয়ে বাইরের আলোচনা-সমালোচনা আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না। এসব নিয়ে ভাবতেও চাই না।’

বার্সায় আরও বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে ক্লাবটির সভাপতি আর কোচের দ্বন্দ্ব। এটাকে অবশ্য বড় করে দেখতে চান না পিকে, ‘এখন আমরা এমন একটা পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, যেটার সঙ্গে আমরা অভ্যস্ত নই। প্রেসিডেন্ট, কোচ পরিবর্তনের ফলে বছরগুলো অস্থির কাটছে। মনের শান্তির জন্য একত্রে আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে। দ্বিতীয় বা তৃতীয় হতে আমি বার্সেলোনার জার্সি পরিনি। আমি এখানে আছি শিরোপার জন্য লড়াই করতে। কঠিন সময় আসবেই। আমি মনে করি, সমর্থকেরা আমাদের পাশেই আছে।’