বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশে মোবাইল-ইন্টারনেট এনেছেন: মতিয়া চৌধুরী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দ্রুত উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। মানুষের মাথাপিছু আয় আর ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধিই যার বড় প্রমাণ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের হাতে গড়া আওয়ামী লীগকে কাজে লাগিয়ে দেশ আজ দুর্বার গতিতে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ‍্যায় ময়মনসিংহ নগরীর জোবেদা কমিউনিটি সেন্টারে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ৯৬ এ বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশে প্রথম মোবাইলফোন আনলেন ও ইন্টারনেট আনলেন। আজ খালেদা জিয়ার ছেলে তা ব্যবহার করছেন অপকর্মে। আর সরকার ব্যবহার করছে বাচ্চাদের শিক্ষার জন্য। করোনাকালীন ঘাটতি পূরণে শিক্ষা ক্ষেত্রে এই নেট কাজ করছে। ফলে সারা পৃথিবীর সঙ্গে তাল মিলিয়ে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে আজ বাংলাদেশ।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, করোনাকালে আওয়ামী লীগের মানবিক কাজ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। প্রমাণ হয়েছে আওয়ামী লীগ মানুষের কল্যানে রাজনীতি করে, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করে। জাতির পিতা আমাদের এগুলো শিখিয়ে দিয়ে গেছেন। তার আদর্শের সঙ্গেই আছে জনকল্যাণ, দেশের সমৃদ্ধি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন দল বিএনপি শুধুমাত্রা মিডিয়ার সামনে নিজেদের চেহারা দেখায়, মিথ্যাচার করে। তাদের রাজনীতি শেখাবে। আওয়ামী লীগ বারবার সংগ্রামের মাধ্যমে গণতন্ত্র সমুন্নত রেখেছে জনগণের কল্যাণে।

ডা. দীপু মনি বলেন, শুধুমাত্র কর্মসূচি কেন্দ্রীক কাজ করলেই হবে না। আওয়ামী লীগকে জনকল্যাণমুখী কাজ করতে হবে। নিয়মিত সভা-সমাবেশ করে ওর্য়াড কমিটি করতে হবে। সদস্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে দলের ফরম ব্যবহার করতে হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেন, আমাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য এক। জাতির পিতা আমাদের একটি সুখী সমৃদ্ধ দেশ দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিচ্ছেন তারই লক্ষ্যে উন্নয়ন। সে ধারাবাহিকতায় বজায় রাখতে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে।