বিশ্বকাপ ধরে রাখার জন্য শতভাগ চেষ্টা করব: আইচ মোল্লা

এর আগে গত ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে আকবর আলীর নেতৃত্বে শরিফুল-শামীমরা বাংলাদেশের ক্রীড়া ইতিহাসের প্রথম শিরোপা অর্জন করেছিলেন। আগামী বিশ্বকাপ তাই বাংলাদেশের জন্য বিশ্বকাপ ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ। সেই চ্যালেঞ্জে জয়ী হতে আশাবাদী আজ মঙ্গলবারের জয়ের নায়ক আইচ। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম তিনটিতে টাইগার যুবাদের কাছে পাত্তাই পেলো না সফরকারী আফগান যুবারা। বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা টানা তৃতীয় ম্যাচ জিতে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই নিশ্চিত করল ওয়ানডে সিরিজ।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তৃতীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন যুবাদের অধিনায়ক মেহেরাব। অবশ্য শুরুতেই ৬ রানে ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। সেখানে ৬১ রানের জুটি গড়ে চাপ কাটান মফিজুল-আইচ। মফিজুল ৯৩ বলে ২৭ রান করে ফিরলেও এক প্রান্তে আগলে থাকেন আইচ। পরে ১৩০ বলে ৮ চার আর ৪ ছয়ে তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম শতক। অবশ্য এরপর বেশি সময় থাকতে পারেননি তিনি। ফয়সাল খানের বলে ১০৮ রানের মাথায় ফিরেন তিনি।

এদিকে আইচের সেঞ্চুরির পর শেষের দিকে আবদুল্লাহ আল মামুনের ২০ বলে ৩২ রানে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে বাংলাদেশ ২২২ রান সংগ্রহ পায়। অবশ্য টার্গেটে নেমে নাইমুর রহমান আর রিপন মন্ডলের তোপে পড়েন আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ৩৯.৪ ওভারে ১২১ রানে পিছিয়ে থেকেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা।

ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি পেয়ে দারুন খুশি তরুণ ব্যাটসম্যান আইচ। সেঞ্চুরি পিছনে কোচদের কৃতিত্ব দিলেন তরুণ এই ব্যাটসম্যান। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘খুবই ভালো লাগছে। অনেক দিন পর খেলার সুযোগ পেয়েছি। আমাদের এটা প্রথম সিরিজ। সেঞ্চুরি করেছি, খুবই ভালো অনুভূতি। কোচরা আমাদের নিয়ে অনেক পরিশ্রম করেছেন। এগুলো অনেক ভূমিকা রেখেছে।’

এদিকে বর্তমানের যুব বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। তাই বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জ শিরোপা ধরে রাখার। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই, আমরা শতভাগ চেষ্টা করব আমাদের জয়ের ধারা বজায় রাখার। সবাইকে সাপোর্ট করার জন্য ধন্যবাদ। আমরা চেষ্টা করছি। দোয়া করবেন যেন খেলাটা ধরে রাখতে পারি।’