শাস্তি পেলেন মুস্তাফিজরা

গতকাল দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে হারের পর আবার শাস্তির মুখেও পড়তে হল রাজস্থান রয়্যালসকে। চলতি আইপিএল মৌসুমে দ্বিতীয় বার ওভার-রেটের নিয়ম ভাঙল রাজস্থান। একই অপরাধ দ্বিতীয় বার, তাই জরিমানাও হল দ্বিগুণ। ২৪ লক্ষ ভারতীয় রূপি জরিমানা গুনতে হচ্ছে অধিনায়ক সাঞ্জু স্যামসনকে। ৬ লক্ষ ভারতীয় রুপি করে জরিমানা হয়েছে দলের বাকি ক্রিকেটারদের।

এদিকে আইপিএলের যে কোড অব কন্ডাক্ট রয়েছে, সেই অনুযায়ী এটা এই মৌসুমে রাজস্থান রয়্যালস দলের দ্বিতীয় ভুল। চলতি মৌসুমে দ্বিতীয়বার স্লো ওভার-রেটের জন্য রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক সাঞ্জু স্যামসনকে ২৪ লক্ষ ভারতীয় রূপি জরিমানা করা হয়েছে। প্লেয়িং ইলেভেনের বাকি ক্রিকেটারদের ৬ লক্ষ রূপি বা তাঁদের ম্যাচ ফি’র ২৫ শতাংশ করে জরিমানা দিতে হবে।

দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে হারের পর শাস্তিও পেতে হল রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক সাঞ্জু স্যামসনকে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বোলিং ওভার শেষ করতে পারেনি রাজস্থান রয়্যালস। ফলে স্লো ওভার রেটের জন্য মোটা অঙ্কের আর্থিক জরিমানা গুনতে হচ্ছে স্যামসন ও তাঁর দলকে।

নিয়ম অনুযায়ী, প্রত্যেক দলকে ৯০ মিনিটের মধ্যে তাঁদের ২০ ওভার বল করতে হয়। এর মধ্যে রয়েছে দুটো স্ট্র্যাটেজিক টাইম আউটও। যার সময়সীমা আড়াই মিনিট করে। কিন্তু আইপিএলের ৩৬তম ম্যাচে দিল্লির বিরুদ্ধে স্যামসনের দল বোলিং ইনিংস নির্দিষ্ট ৯০ মিনিটের মধ্যে শেষ করতে পারেনি।

ম্যাচে, মুস্তাফিজুর রহমানের দাপুটে বোলিংয়ের সামনে দাঁড়িয়ে বড় সংগ্রহ করতে ব্যর্থ দিল্লি ক্যাপিটালস। এদিন রাজস্থানের সেরা বোলার মুস্তাফিজ; ৪ ওভারে ২২ রান খরচায় নিয়েছেন ২টি উইকেট। ১৫৪ রানে দিল্লিকে আটকে রেখেও ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় হারতে হল রাজস্থান রয়্যালসকে। অধিনায়ক স্যামসনের অপরাজিত ৭০ রানও কাজে আসেনি। আবুধাবিতে ৩৩ রানের পরাজয় দেখল রাজস্থান রয়্যালস।