ইসলামে সব ধর্মের স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

‘ইসলাম শান্তির ধর্ম’ কথাটি অতি সত্য ও বাস্তব কথা। আমাদের ধর্ম ইসলামের নামকরণ সিলম ও সালাম তথা শান্তি শব্দ থেকে এসেছে। সালামই এ ধর্মের পরিচয় ও নিদর্শন। শান্তিই এর আহ্বান ও পথ-পন্থা। সালামের এ ধর্মই আল্লাহ তা‘আলা তাঁর বান্দাদের জন্য মনোনীত করেছেন।

নতুন খবর হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ইসলাম ধর্মে সব ধর্মের স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে। আমাদের সূরা কাফিরুনে স্পষ্ট বলা আছে, লাকুম দ্বীনুকুম ওয়ালিয়া দ্বীন অর্থাৎ যার যার ধর্ম তার তার কাছে। অর্থাৎ ধর্ম পালনে যেন স্বাধীনতা থাকে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি আয়োজিত শারদীয় দুর্গাপূজার মহানবমীর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান। গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠানে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, আমাদের নবী করিম হজরত মুহাম্মদ (সা.) সেটাই বিশ্বাস করতেন। সকল ধর্মাবলম্বী মানুষ তাদের নিজ ধর্ম পালন করবেন। কিছু লোক ধর্মান্ধতায় ভোগে। তারা সবসময়ই একটা সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করতে চায়। এটা শুধু আমাদের দেশে মুসলমান হিসেবে না, এটা সব ধর্মেই ধর্মান্ধ শেণিটা আছে। তারা সবসময় গোলমাল বা একটা কিছু করতে চেষ্টা করতে থাকে। সেক্ষেত্রে আমরা সকলে এক হয়ে যদি চলি তাহলে তারা এ ক্ষতি করতে পারবে না।