ওমানে খেলা না হলে বাছাই পর্বেই বাদ পড়ত বাংলাদেশ!

‘ক্রিকেট ইজ অ্যা জেন্টলম্যান’স গেইম’ বলে একটি কথা আছে। কিন্তু কোথাও লেখা দেখিনি বা শুনিনি যে ‘ক্রিকেট ইজ এ ফানি গেইম’। তবে অনেকেই মনে করে ক্রিকেট একটি মজার খেলা। আসলে মনে করাটাই স্বাভাবিক, কেননা ডব্লিউ জি গ্রেসের মতে এই আধুনিক ক্রিকেটটা আসলেই কয়েক’শ কোটি মানুষের বিনোদনের খোরাক যোগাচ্ছে।

নতুন খবর হচ্ছে, এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টেস্ট খেলুড়ে দেশ হিসেবে বাছাইপর্ব খেলতে হচ্ছে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কাকে। ওমানের কন্ডিশন অনেকটাই এই দুই দেশের ঘরের মতোই। কন্ডিশন ভিন্ন হলে উভয় দলের জন্য বাছাই পর্ব পার হওয়া কঠিন হতো বলে মন্তব্য করেছেন প্রেস্টন মমসেন।

ওমানে অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের আসরের বাছাই পর্ব। এখানকার উইকেটে কিছুটা হলেও বাড়তি সুবিধা পাবে স্পিনাররা। এদিকে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ স্কোয়াডের বড় শক্তির জায়গা স্পিন। তাই স্কটল্যান্ডের সাবেক এই অধিনায়ক বলছেন বাছাই পর্বের বাধা পাড় হতে কন্ডিশনের বাড়তি সুবিধা পাবে এই দুই দল।

মমসেন বলেন, ‘আমি মনে করি, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ দুই দলই পরের ধাপে যাবে। যদি ভিন্ন কন্ডিশনে খেলা হতো তাহলে হয়তো আমি এমনটা ভাবতাম না। এখানকার কন্ডিশন প্রায় তাদের ঘরের মতোই।’

বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার লক্ষ্যে এই দুই দলের মতোই বাছাই পর্বে অংশ নিচ্ছে স্কটল্যান্ড। মমসেন বলছেন, এই পর্ব পাড় হয়ে মূল পর্বে খেলাটা স্কটিশদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তার বিশ্বাস সেটা ভালোভাবেই করতে পারবে স্কটল্যান্ড।