পাওয়ার-প্লে’তে ৬০-৭০ রান চান আকরাম খান

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে আকরাম খান অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, বিশ্বকাপের প্রাক্বালে বাংলাদেশের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে দলের ব্যাটিং ইউনিট। বিশ্বকাপের আগের দুই সিরিজে ব্যাটাররা ফর্মে ছিলেন না। বিশ্বকাপ ভেন্যুতে প্রস্তুতি ম্যাচেও রানের জন্য করেছেন সংগ্রাম।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজে স্বাগতিক টাইগাররা খেলেছিল স্পিন বান্ধব কন্ডিশনে। এ কারণে ব্যাটাররা ছিলেন অনেকটাই অসহায়। বড় ইনিংসের দেখাই পাননি বলা চলে। তবে প্রত্যাশা ছিল, বিশ্বকাপ ভেন্যুতে ভালোভাবেই মানিয়ে নেবেন ক্রিকেটাররা।

প্রস্তুতি ম্যাচে অবশ্য সেই প্রত্যাশা পূরণ হয়নি। শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাটাররা ছিলেন নিষ্প্রভ। সৌম্য সরকার ও নুরুল হাসান সোহান লড়াই করলেও বাকিরা ছিলেন ম্লান।

মূলত ব্যাটিং ব্যর্থতাই প্রস্তুতি ম্যাচে জোড়া পরাজয় উপহার দিয়েছে বাংলাদেশকে। ব্যাটিংয়ের এই দুর্ভাবনা কাটাতে পাওয়ারপ্লে কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন বোর্ড পরিচালক ও জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান।

আকরামের মতে, পাওয়ারপ্লেতে ভালো রান তুলতে পারলে ব্যাটিং ইউনিটের কাজ সহজ হয়ে যায়। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাওয়ারপ্লেতে ২ উইকেট হারিয়ে ৪১ রান জড়ো করেছিল বাংলাদেশ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মাত্র ৩৬ রান জড়ো করেছিল ৩ উইকেট হারিয়ে।

এই দৃশ্যের পরিবর্তন চান আকরাম। তিনি বলেন, ‘প্রথম ৬ ওভারে দলকে যথেষ্ট রান স্কোর বোর্ডে তুলতে হবে। ওখানেই আসলে ভিত দাড়িয়ে যায়। টপ অর্ডারের ব্যাটারদেরই দায়িত্ব নিতে হবে। ৬০-৭০ রান তুলতে পারলে একটা অবস্থান থাকে। এবার আপনি লক্ষ্য তাড়া করুন কিংবা টার্গেট সেট করুন।’