পাকিস্তানকে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুড়ে দিল আফগানিস্তান

পাকিস্তানক- আফগানিস্তান খেলা মানেই টানটান উত্তেজনা। খেলার মাঠে কোন দলই হার মেনে নিতে চায়না। তবে শেষ হাসি হাঁসতে হয় যে কোন এক দলকেই।

নতুন খবর হচ্ছে, পাকিস্তানের বিপক্ষে ফাইটিং স্কোর গড়েছে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। সপ্তম উইকেটে মোহাম্মদ নবী ও গুলবাদিন নাইব ৪৫ বলে ৭১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়েন। তাদের এই জুটিতেই ৬ উইকেটে ১৪৭ রান তুলতে সক্ষম হয় আফগানরা।

চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে ১০ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারায় পাকিস্তান। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারায় বাবর আজমরা। আজ তৃতীয় ম্যাচে জিততে হলে আফগানদের বিপক্ষে ১৪৮ রান করতে হবে বাবর-রিজওয়ানদের।

শুক্রবার আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় আফগানিস্তান।

এদিন আগে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৩ রানে দুই ওপেনার হযরতউল্লাহ জাজাই ও মোহাম্মদ শেহজাদের উইকেট হারায় আফগানরা। হযরতউল্লাহকে ফেরান ইমাদ ওয়াসিম। আর শেহজাদকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন শাহিন আফ্রিদি।

১৩ রানে ২ ওপেনারের উইকেট হারানো আফগানিস্তান এরপর দলীয় ৩৩ ও ৩৯ রানে হারায় আসগর আফগান ও রহমতউল্লাহ গুরবাজকে। দলীয় ৬৪ ও ৭৬ রানে ফেরেন করিম জানাত ও নজিবুল্লাহ জাদরান।

এরপর দলের হাল ধরেন গুলবাদিন নাঈব ও অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী। সপ্তম উইকেটে ৪৫ বলে ৭১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে গড়েন তারা। তাদের এই জুটিতে ভর করে ৬ উইকেটে ১৪৭ রান তুলতে সক্ষম হয় আফগানিস্তান।

দলের হয়ে ২৫ বলে ৪টি চার ও এক ছক্কায় সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন মোহাম্মদ নবী। আর ৩২ বলে ৩৫ রান করে অপরাজিত থাকেন গুলবাদিন নাইব।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

আফগানিস্তান: ২০ ওভারে ১৪৭/৬ (মোহাম্মদ নবী ৩৫*, গুলবাদিন নাঈব ৩৫*, নজিবুল্লাহ জাদরান ২২, করিম জানাত ১৫, রহমতউল্লাহ গুরবাজ ১০, আসগর আফগান ১০)। উল হক।