ফিল্ডিং ভালো করতে ফেসবুক ছাড়তে বললেন মাশরাফি

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে মাশরাফি অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, এই বিশ্বকাপে ম্যাচ খেলতে নামার আগে বাংলাদেশের খেলোয়াড়েরা হাতে মাখন মেখে খেলতে নামছেন কি না, জোর আলোচনা হতে পারে। সব মিলিয়ে ছয় ম্যাচে ১২ বার ক্যাচ হাত ফসকায় কী করে! বাকি সবার মতো ফিল্ডিংয়ের এই দশা দেখে হতাশ সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাও। ফিল্ডিংয়ে ভালো করার জন্য খেলোয়াড়দের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ছাড়তে বললেন মাশরাফি।

কোনো ম্যাচে ব্যাটিং ভালো হচ্ছে, কোনো ম্যাচে ভালো হচ্ছে বোলিং। কিন্তু এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ফিল্ডিংটা ভালো হচ্ছে না কোনো ম্যাচেই। বিশ্বকাপের প্রথম পর্ব থেকে এই পর্যন্ত ৬ ম্যাচে মোট ১২টি ক্যাচ মিস করেছেন মেহেদি-লিটনরা।

শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ, এই দুই ম্যাচেই জেতার খুব কাছে গিয়ে শুধু ফিল্ডিং–ব্যর্থতার কারণে হাতছাড়া হয়েছে। বাংলাদেশের ফিল্ডিংয়ের এই দৈন্য দশা কয়েক দিন ধরে নয়, প্রায় দুই বছর ধরে চলে আসছে। এই দুই বছরে অনেক ম্যাচ জেতার দ্বারপ্রান্তে এসে হেরে গেছে বাংলাদেশ, ফিল্ডিংয়ের কিছু ভুলের কারণেই। গতকাল ইউটিউবের এক লাইভে এসে এগুলো নিয়ে কথা বলেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল ও সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

তামিমের কাছে ক্যাচ মিস যদিও খেলারই অংশ; তাই বলে এভাবে নিয়মিত ক্যাচ মিস করে দল ম্যাচ হেরে যাচ্ছে, এই সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে দলের হারে ক্যাচ মিসের প্রভাব মেনে নিলেন তামিম, ‘ক্যাচ মিস খেলার অংশ, এতে কোনো সন্দেহ নেই। কিন্তু এর জন্য যদি আমরা নিয়মিত ম্যাচ হারা শুরু করি, তাহলে সেটা ঠিক না। গত দুই বছরে ফিল্ডিংয়ের জন্য আমরা সব সংস্করণ মিলিয়ে অনেক ম্যাচ হেরেছি। আমরা ফিল্ডিংয়ে অনেক ভালো একটা দল হতে পারি, সে যোগ্যতা আমাদের আছে। কিন্তু এখন আমরা পারছি না, ফলে ম্যাচ হারছি।’