বাংলাদেশ-স্কটল্যান্ড ম্যাচ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আশরাফুল

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে আশরাফুল অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, ক্রিকেটের মারমার কাটকাট সংস্করণের শুরুটাও হবে দুই খর্বশক্তির দল ওমান ও পাপুয়া নিউগিনির ম্যাচ দিয়ে, বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায়। তবে একই দিনে রাত ৮টায় শুরু হতে যাওয়া ম্যাচের প্রতীক্ষায় প্রহর গুনছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা।

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ওমানের মাসকাট ক্রিকেট একাডেমি মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল।

কারণ দুটি— প্রথমত ব্যাটাররা কেউ ফর্মে নেই। দুটি প্রস্তুতি ম্যাচেই হেরেছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয়ত বাংলাদেশ এমন একটি দলের বিপক্ষে খেলে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে, যাদের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাংলাদেশের জেতার রেকর্ড নেই।

স্কটল্যান্ডের সঙ্গে এর আগে একটিই টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। সেটিতে হেরেছিলেন টাইগাররা।

২০১২ সালের সেই ম্যাচে দলে ছিলেন আশরাফুল। সেই স্মৃতিচারণ করেই দুশ্চিন্তায় ডুবেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের প্রথম পোস্টার বয়।

গণমাধ্যমে আশরাফুল নিজের কলামে লিখেছেন, ‘স্কটল্যান্ড বিশ্বকাপের আগে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে, দুটিতেই জিতেছে। উল্টো দিকে বাংলাদেশ নিজের প্রস্তুতি ম্যাচে দুটোতেই হেরেছে। শ্রীলংকা আর আয়ারল্যান্ডের কাছে হেরে গেলাম আমরা। ওমান ‘এ’ দলের সঙ্গে জিতেছি। কিন্তু শ্রীলংকা না হলেও আয়ারল্যান্ডের কাছে হারটা মেনে নেওয়া যায় না।

বিশ্বকাপের আগে টানা তিনটি সিরিজ জেতায় বাংলাদেশ দলের বেশি আত্মবিশ্বাসী হওয়ার কিছু নেই বলে মনে করেন আশরাফুল।

বললেন, ‘অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড দুটি সিরিজে মিরপুরের মরা উইকেটে খেলে আমরা জিতেছি। ব্যাটাররা রান পায়নি। এমন উইকেটে খেলা হয়েছে যে, বোলারদের পক্ষেও পূর্ণ আত্মবিশ্বাস অর্জন সম্ভব নয়। কিন্তু ওমানের মাসকাটের উইকেটে প্রচুর রান আছে। আর এমন মুহূর্তে বাংলাদেশের বেশিরভাগ ব্যাটার ফর্মে নেই। লিটন দাস, মোহাম্মদ নাঈম থেকে শুরু করে মুশফিকুর রহিম— সবার ব্যাটেই খরা।