বিশ্বকাপে প্রথম বোলার হিসেবে বিশ্বরেকর্ড গড়লেন রুবেন

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভের পঞ্চম দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে খেলছে স্কটল্যান্ড-নামিবিয়া। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই প্রথম স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েই চমক দেখিয়েছে নামিবিয়া। মাত্র ১০৯ রানে স্কটল্যান্ডকে আটকে দিয়েছে তার। এতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেছেন পেসার রুবেন টেম্পলম্যান। দুর্দান্ত বোলিংয়ে বিশ্বের প্রথম বোলার হিসেবে গড়েছেন এক বিশ্বরেকর্ডও।

এদিন টস হেরে ব্যাট করতে নেমে রুবেনের প্রথম ওভারেই ২ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্কটিশরা। রুবেন আউট করেন মানসি, ম্যাকলয়েড ও ব্যারিংটনকে। যে ২ রান আসে তা ওয়াইড দেন এই পেসার। এরই সাথে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে প্রথম বোলার হিসেবে ম্যাচের প্রথম ওভারেই ৩ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড গড়েন রুবেন। শুধু বিশ্বকাপ নয় টি-টোয়েন্টি কোন ম্যাচেই এমন রেকর্ড গড়তে পারেনি কোন বোলার।

তবে টি-টোয়েন্টিতে কোন ইনিংসের প্রথম ওভারেই ৩ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড আছে আরো একজনের। তিনি হলের লঙ্কান অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ২০০৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উইন্ডিজদের প্রথম ওভারেই তিন উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। সেটি ছিল দ্বিতীয় ইনিংসে। ম্যাথিউস আউট করেছিলেন জাভিয়ার মার্শাল, লিন্ডল সিমন্স ও ডোয়াইন ব্রাভোকে।

এদিকে টপ তিন ব্যাটারের বিদায়ের চাপ সামলাতে না সামলাতেই দলীয় ১৮ রানে ক্রেগ ওয়ালেসকে হারায় স্কটল্যান্ড। এরপর দলের হাল ধরেন ম্যাথু ক্রস ও মিচেল লিস্ক। কিন্তু ম্যাথু ক্রসের(১৯) বিদায়ে ভাঙে ৩৯ রানের জুটি। এরপর গ্রিভসকে নিয়ে ৩৬ রানের জুটি গড়ে লিস্ক।

এদিকে দলীয় ৯৩ রানে বিদায় নেন মিচেল লিস্ক। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৪ রান এসেছে তার ব্যাট থেকেই। শেষ বলে গ্রিভস আউট হন ব্যক্তিগত ২৫ রানে। এতে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে স্কটল্যান্ডের সংগ্রহ ১০৯ রান।