র্র্যাংকিংয়ে ৬ নম্বরে থাকলেই ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে বাংলাদেশ

‘ক্রিকেট ইজ অ্যা জেন্টলম্যান’স গেইম’ বলে একটি কথা আছে। কিন্তু কোথাও লেখা দেখিনি বা শুনিনি যে ‘ক্রিকেট ইজ এ ফানি গেইম’। তবে অনেকেই মনে করে ক্রিকেট একটি মজার খেলা। আসলে মনে করাটাই স্বাভাবিক, কেননা ডব্লিউ জি গ্রেসের মতে এই আধুনিক ক্রিকেটটা আসলেই কয়েক’শ কোটি মানুষের বিনোদনের খোরাক যোগাচ্ছে।

নতুন খবর হচ্ছে, দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই বছরের পর আগামী বছর আরও একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রয়েছে। যেটি অনুষ্ঠিত হবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। তবে এই স্বল্প সময়ের মধ্যে আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য দল চূড়ান্ত করতে বেশ বেকায়দায় পড়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল।

অল্প সময়ের মধ্যে দল নির্বাচনের জন্য আগের নিয়ম থেকে বেরিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। নতুননিয়ম অনুযায়ী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরে সুপার টুয়েলভে খেলা প্রতিটি দলেরই অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে সরাসরি খেলার সুযোগ পাবে। তবে সেখানেও একটু সমস্যা রয়েছে।

আইসিসির নতুন নিয়ম অনুযায়ী, এবারের বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলা দুটি দল সরাসরি সুযোগ পাবে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে। বাকি ১০ দলের মধ্যে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা ৬ টি দল সরাসরি সুযোগ পাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত র্র্যাংকিংয়ে শীর্ষে থাকা সুপার টুয়েলভের ৬ দল অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে সুযোগ পাবে।

বাকি চার দল জায়গা পাবে বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব থেকে। বর্তমানে আইসিসি টি-টোয়েন্টি র্র্যাংকিংয়ে ৬ নম্বর অবস্থান করছে বাংলাদেশ। ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত এই র‌্যাঙ্কিং ধরে রাখতে পারলে সরাসরি অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ খেলতে পারবে টাইগাররা।