৮৮ ইউপি নির্বাচনে থাকছে না নৌকা প্রতীক

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের ৮৮ ইউনিয়নে থাকছে না আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকা। ফলে ইউনিয়নগুলোতে উন্মুক্ত থাকছে আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা। আগামী ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল সোমবার (২৫ অক্টোবর) গণভবনে দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর কয়েকজন সদস্য জানান, ওই দুই জেলার ছয়জন সংসদ সদস্যের অনুরোধে ওইসব ইউনিয়নে উন্মুক্ত রাখা হয়েছে দলের প্রার্থিতা।

দলীয় প্রার্থিতা উন্মুক্ত রাখার অনুরোধ জানিয়ে শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের ছয় এমপি দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিঠি দেন। কেননা, ওই দুই জেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীদের সবাই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী-সমর্থক।

এ বিষয়ে শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবিদুর রহমান খোকা শিকদার গণমাধ্যমকে জানান, তারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তার জেলায় দলীয় প্রার্থিতা উন্মুক্ত রাখার অনুরোধ জানিয়ে কেন্দ্রে চিঠি পাঠানো হয়েছে। শরীয়তপুর জেলার তিন এমপিসহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে ওই চিঠি পাঠান। যার প্রেক্ষিতে আসন্ন ইউপি নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে তার জেলার ৫৫ ইউনিয়নে হচ্ছে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন। উন্মুক্ত থাকছে দলীয় প্রার্থিতা।

এ প্রসঙ্গে মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা জানান, তারা দলীয়ভাবে তৃণমূল পর্যায় থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা কেন্দ্রে পাঠান, যাতে সেখান থেকে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২৬ জন দলীয় মনোনয়ন পান প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে। তবে তৃতীয় ধাপ থেকে দলীয় প্রার্থিতা উন্মুক্ত থাকায় নৌকা প্রতীক থাকছে না ২৬টি ইউনিয়নে।