অবশেষে শিক্ষার্থীদের ‘হাফ ভাড়া’ নিতে রাজি রাইদা পরিবহন

আজ বিকেলে রাজধানীর রামপুরায় বিটিভি ভবনের সামনে রাইদা পরিবহনের বাস আটকের ঘটনায় আফতাব নগরের ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সমঝোতায় রাজি হয়েছে রাইদা বাস মালিকপক্ষ।

রামপুরা থানায় দুইপক্ষের সমঝোতায় শিক্ষার্থীরা দাবি করে, পরিচয়পত্র দেখানো মাত্র শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া নিতে হবে। পরে শিক্ষার্থীদের এই দাবি রাইদা কর্তৃপক্ষ মেনে নেয়। আজ সোমবার (১৫ নভেম্বর) বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রামপুরা থানার পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) মো. সাইফুল ইসলাম।

এ সময় তিনি বলেন, ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে রাইদা পরিবহনের সমঝোতা প্রায় শেষ দিকে রয়েছে। শিক্ষার্থীদের সব দাবি রাইদা পরিবহন কর্তৃপক্ষ মেনে নিয়েছে। শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের কাছে দাবি করে, নিয়ম অনুযায়ী ঢাকা শহরের যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা তাদের পরিচয় পত্র দেখানো মাত্র তাদের হাফ ভাড়া নিতে হবে। এছাড়া প্রতিটি বাসে নারীদের জন্য যে নয়টি আসন সংরক্ষিত থাকে সেখানে কোনোভাবেই নারীরা ছাড়া পুরুষ বসতে পারবেন না।

এদিকে ওসি-তদন্ত বলেন, রাইদা পরিবহনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এসব দাবি মেনে নিয়েছেন ও আমাদের এসব বাস্তবায়নের বিষয়ে আশ্বাস দিয়েছেন। সমঝোতা প্রায় শেষ দি।কে সমঝোতা শেষে এই রাস্তায় আটকে থাকা বাসগুলো ছেড়ে দেওয়া হবে।