আমরা আর কত ভর্তুকি দেব: প্রধানমন্ত্রী

আজ বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সারাবিশ্বেই তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় দেশে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। ডিজেলে ২৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেওয়া হয়। সব মিলিয়ে ৫৩ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেই।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের গ্লাসগো, লন্ডন ও ফ্রান্সের প্যারিস সফর নিয়ে আজ বুধবার বিকেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিক শাহজাহান সরদারের এক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

এ সময় সাংবাদিকদের প্রতি প্রশ্ন রেখে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাহলে আপনারা বলেন কত টাকা ভতুর্কি দেব, বাজেটের সব টাকা ভর্তুকি দিয়ে দেই। তাহলে কিন্তু আর দেশে উন্নয়ন হবে না।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, আমরা করোনাকালে সবাইকে বারবার সহায়তা দিয়েছি। কলকারখানা, ব্যবসা-বাণিজ্য যাতে সচল থাকে তার ব্যবস্থা নিয়েছি। বিভিন্ন সেক্টরে প্রণোদনা দিয়েছি। মূল্যস্ফীতি কমাতে ব্যবস্থা নিয়েছি। সবই তো করছি। কিন্তু তেল তো আমাদের কিনে আনতে হয়। সেই কেনা তেলে আবার ভর্তুকি দিয়ে জনগণকে দিতে হয়।

এ সময় ট্যাক্স দেওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের দেশে তো মানুষ ভালোভাবে খাচ্ছে, চলছে। কিন্তু প্রকৃত ট্যাক্স দিচ্ছে কয়জন?

এ সময় বাস ও অন্যান্য পরিবহনের ভাড়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি দেশে ছিলাম না ঠিক, তবে দেশের সঙ্গে ছিলাম না তা তো নয়। ডিজিটাল যুগ। বিভিন্ন মাধ্যমে বারবার যোগাযোগ হয়েছে। যারা ভাড়া বাড়াচ্ছিল তাদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এরপর একটি যৌক্তিক পর্যায়ে ভাড়া রাখা হয়েছে।