খালেদা জিয়ার টার্গেট সব সময় আমি: প্রধানমন্ত্রী

একজন সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে শেখ হাসিনার অবদান আজ আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। ইতোমধ্যে তিনি গণতন্ত্র, স্বাস্থ্য ও শিশু মৃত্যুর হার হ্রাস, তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার, দারিদ্র্য বিমোচন, উন্নয়ন এবং দেশে দেশে জাতিতে জাতিতে সৌভ্রাতৃত্ব, সম্প্রীতি ও শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য আন্তর্জাতিকভাবে বিভিন্ন খেতাব আর সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। মর্যাদাপূর্ণ অসংখ্য পদক, পুরস্কার ও স্বীকৃতির পালক এখন শেখ হাসিনার মুকুটে একের পর এক যুক্ত হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জিয়া, এরশাদ ও খালেদা সবাই ১৫ আগস্ট খুনিদের মদদ দিয়েছেন। তাদের পুনর্বাসন করেছেন। আর খালেদা জিয়ার টার্গেট সব সময় আমি।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া ঘোষণা দিয়েছিলেন যে আমি প্রধানমন্ত্রী কেন বিরোধীদলীয় নেতাও হতে পারব না। শত বছরেও ক্ষমতায় আসতে পারব না। এসব ঘোষণার পরই হামলা। গ্রেনেড হামলা!

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গরীবের টাকা লুট করে বিদেশে পাচার করা বিএনপিকে কোন আশায় মানুষ ভোট দেবে?

বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বে মর্যাদাপূর্ণ অবস্থানে পৌঁছে গেছে। আমরা জনগণের কল্যাণে কাজ করছি। উন্নয়নের ছোঁয়া গ্রাম পর্যন্ত নিশ্চিত হয়েছে। সব শ্রেণি পেশার মানুষ উন্নয়নের ছোঁয়া পেয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, এত উন্নয়নের পরও কিছু মানুষ বিদেশে ও দেশে বসে অপপ্রচার করছে। এদের বিরুদ্ধে সচেতন হতে হবে। অপপ্রচারের জবাব দিতে হবে।