টেস্ট সিরিজের আগে বড় দুঃসংবাদ বাংলাদেশের

সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মাঝপথে হ্যামস্ট্রিং চোটে ছিটকে যাওয়া সাকিব আল হাসান মিস করছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টও। যদিও তাকে নিয়েই ১৬ সদস্যের প্রথম টেস্টের স্কোয়াড দেয় নির্বাচকরা। গত ২১ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফেরা সাকিবের স্ক্যান করা হয় গতকাল (২৩ নভেম্বর)। রিপোর্টে বড় কিছু ধরা না পড়লেও বিশ্রামে থাকতে হচ্ছে আরও কয়েকদিন।

এদিকে চট্টগ্রাম টেস্টে সাকিবের না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। ঢাকা টেস্টেও তার থাকা নিয়ে আছে অনিশ্চয়তা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচে চোটে পড়েন সাকিব। যে কারণে মিস করতে হয় দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচ।

এদিকে বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়া সাকিব সরাসরি চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে। চোট সেরে না ওঠায় খেলেননি পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজও। দেশে ফেরেন ২১ নভেম্বর, লক্ষ্য ছিল ২৬ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া চট্টগ্রাম টেস্ট দিয়ে মাঠে নামা। ১৬ সদস্যের স্কোয়াডে তাকে অন্তর্ভূক্ত করা হলেও নির্বাচকরা তার ফিট হওয়ার দিকে তাকিয়ে ছিলেন।

গতকাল সাকিবকে রেখেই অবশ্য পুরো দল চট্টগ্রামের বিমানে চড়ে। স্ক্যান রিপোর্টের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন সাকিব। তবে শেষ পর্যন্ত এই টাইগার অলরাউন্ডারের যাওয়া হচ্ছে না চট্টগ্রামে। ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে ঢাকা টেস্ট, ঐ ম্যাচেও তার থাকার সম্ভাবনা কম।