‘তৃতীয় শ্রেণীতেও এমন ব্যাটিং পাবেন না’,-ওয়াহ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যাটিং স্বর্গে মাত্র ৭৩ রানে বিধ্বস্ত হওয়া বাংলাদেশের ব্যাটিং দেখে হতবাক সাবেক অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান মার্ক ওয়াহ। তার মনে হচ্ছে তৃতীয় শ্রেণীতেও এত বাজে ব্যাটিং প্রদর্শনীর দেখা পাওয়া যাবে না। বাংলাদেশের হতশ্রী ব্যাটিং প্রদর্শনীর সমালোচনা করেছেন মাইক আথারটন, ক্রিকেট লেখিয়ে টিম উইগমোররাও।

বৃহস্পতিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ব্যাট করার জন্য বেশ ভালো উইকেটেও মাত্র ৭৩ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। মাত্র ৬.২ ওভার খেলেই ওই রান পেরিয়ে অনায়াসে জেতে অজিরা।

ম্যাচটি দেখে ফক্স স্পোর্টসকে দেওয়া সাক্ষাতকারে অস্ট্রেলিয়ার এক সময়ের নান্দনিক ওপেনার ওয়াহ দিয়েছেন তীব্র প্রতিক্রিয়া, ‘খুবই পীড়াদায়ক ব্যাটিং প্রদর্শনী। আমি জানি অস্ট্রেলিয়া ভাল বল করেছে, কিন্তু বাংলাদেশ যেমন ব্যাট করেছে তা আন্তর্জাতিক মানের না। খুবই বিব্রতকর প্রদর্শনী। এটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। অথচ তারা যেমন খেলেছে তৃতীয় শ্রেণীতেও এমন ব্যাটিং পাবেন না।’

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এটিই কোন দলের সর্বনিম্ন সংগ্রহ। গত বিশ্বকাপেও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে মাত্র ৭০ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

ব্রডকাস্টার মার্ক নিকোলাস বলেন বাংলাদেশের ব্যাটিং এতটাই বাজে যা আসলে বিশ্বাস করার মতো না। সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার মাইক আথারটন বলছেন, ‘ভয়াবহ আত্মবিশ্বাসের ঘাটতিতে ভুগছেন মাহমুদউল্লাহরা।’

ক্রিকেট লেখক লরেন্স বুথ টুইটারে লিখেছেন বাংলাদেশকে দেখে তার মনে হয়েছে এটি বিধ্বস্ত এক দল। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৭৩ রানে গুটিয়ে যাওয়ার আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৮৪ রানে শেষ হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ইনিংস।

টানা দুই ম্যাচে একশোর নিচে গুটিয়ে যাওয়া দল সুপার টুয়েলভে জিততে পারেনি একটি ম্যাচও। প্রথম রাউন্ডেও স্কটল্যান্ডের কাছে হেরেছিল। হারিয়েছিল কেবল ওমান আর পাপুয়া নিউগিনিকে।

ক্রিকেট লেখক টিম উইগমোর বলছেন সবচেয়ে কড়া কথা। তার মতে সুপার টুয়েলভে সবচেয়ে বাজে দল বাংলাদেশ, ‘বাংলাদেশের কাছ থেকে এটি ভয়াবহ পারফরম্যান্স। তারা সম্ভবত সুপার টুয়েলভের সবচেয়ে বাজে দল। এর অনেক কারণ আছে, একটি বড় কারণ হচ্ছে তারা জঘন্য উইকেট বানিয়ে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছে। যেটা তাদের উন্নতিতে কোন ভূমিকা রাখেনি।’

ক্রীড়া সাংবাদিক ড্যানিয়েল চার্নির মতে বাংলাদেশ ঘুরপাক খাচ্ছে একই বৃত্তে, ‘গত ২৫ বছরে বাংলাদেশের উন্নতির ধারা হচ্ছে সাত ধাপ এগুনো, আবার ছয় ধাপ পেছনে যাওয়া। এভাবেই পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। তাদের উন্নতি আছে কিন্তু সেটা খুব ধীর।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাজে হারে বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর কারণ ব্যাখ্যায় অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ ছিলেন উত্তরহীন। তিনি বলছেন অনেক প্রশ্নের উত্তর তিনিও খুঁজে বেড়াচ্ছেন।