নির্বাচনী সহিংসতায় গুলিতে প্রাণ গেল যুবলীগ নেতার, পদ থেকে আ.লীগ নেতা বহিষ্কার

গতকাল রাতে পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতায় গুলিবিদ্ধ পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভ মারা গেছেন। ঢাকার স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাত ১১টায় শুভর মৃত্যু হয় বলে জানান সাথে থাকা যুবলীগ নেতারা। ফয়সাল মাহাবুব শুভ পিরোজপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও কলেজ ছাত্রসংসদের ভিপি ও জিএস ছিলেন।

এদিকে জানা যায়, গত ৭ নভেম্বর বিকেলে সদর উপজেলার জি হায়দার মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. তোফাজ্জেল হোসেন মল্লিক স্বপনের নির্বাচনী সভায় অংশগ্রহণ শেষে রাত সাড়ে সাতটার দিকে শহরে ফিরছিল নৌকা প্রতীকের সমর্থক দলীয় নেতাকর্মীরা। ফেরার পথে ওই ইউনিয়নের মল্লিক বাস স্ট্যান্ডে স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকের প্রার্থী ও জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দিন মাতুব্বরের লোকজনের সাথে তাদের সংঘর্ষ হয়।

এ সময় নাসির উদ্দিন মাতুব্বরের লোকজন গুলি চালালে আহত হয় পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভ। ওই দিন রাতে গুরুতর আহত অবস্থায় ফয়সাল মাহাবুব শুভকে খুলনা প্রেরণ করা হয়। এর পরদিন ৯ নভেম্বর দুপুরে শুভকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় নেওয়া হয়। ঢাকার স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় রাতে মারা যান শুভ।

জানা যায়, নির্বাচনী সহিংসতায় গুলি ছোড়ার ঘটনার পর পরই অভিযুক্ত নাসির উদ্দিন মাতুব্বরকে আটক করে পুলিশ। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় প্রধান আসামি করা হয় নাসির উদ্দিন মাতুব্বরকে। এরপর জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদকের পদ থেকেও তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।