‘নৌকার বিরুদ্ধে যারা নির্বাচন করছে তারা মানসিক রোগী’

আসন্ন নির্বাচনে স্বতন্ত্র থেকে নৌকা মার্কা প্রতীকের বিরুদ্ধে যারা নির্বাচন করছেন, তারা মানসিক রোগী। তাদের পাবনা শহরের মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন পাবনা জেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা। গতকাল শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সন্ধায় পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী প্রচারণার শেষ দিনে সংক্ষিপ্ত পথসভা অনুষ্ঠানে জেলা যুবলীগ নেতাকর্মীরা এমন মন্তব্য করেন।

এ সময় বক্তারা আরও বলেন, আজকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আওয়ামী লীগ, সংসদ সদস্য নৌকা মার্কার, উপজেলা চেয়ারম্যান নৌকা মার্কার। স্বতন্ত্র প্রার্থী আপনি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হলেও কিছুই করতে পারবেন না। কারণ সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান আপনাকে সহযোগিতাই করবে না। আপনাকে আওয়ামী লীগ মানেই না। যুবলীগ, ছাত্রলীগ কেউ মানে না। আপনি যোগ্য হলে সবাই আপনার সঙ্গেই থাকতো।

এ সময় বক্তারা বলেন, আজ নির্বাচনী পথসভা জনসভায় রূপ নিয়েছে, ২৮ নভেম্বর লক্ষ্মীকুণ্ডার জনগন নৌকায় ভোট দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীকে বুঝিয়ে দেবে দলের বিরুদ্ধে নির্বাচন করার কী জ্বালা।

এদিন লক্ষ্মীকুণ্ডা ইউনিয়ন যুবলীগ আয়োজিত এবং ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আলফাজ উদ্দিনের পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত পথসভায় বক্তব্য রাখেন, লক্ষ্মীকুণ্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নজরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আনিসুর রহমান শরীফ, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা গালিবুর রহমান শরীফ, পাবনা জেলা যুবলীগ আহ্বায়ক আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনি, ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি শিরহান শরীফ তমালসহ আরও অনেকেই।

এদিকে ঈশ্বরদী উপজেলায় লক্ষ্মীকুণ্ডাসহ তিনটি ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকা প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। বাকি চারটি ইউনিয়নে আগামীকাল ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে দলীয় প্রতীকের বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা অংশগ্রহণ করছেন।