পুলিশের নির্যাতনে মারা যাওয়ার অভিযোগ থানা ঘেরাও, ভাঙচুর

গতকাল রাতে রংপুরের হারাগাছে পুলিশের হাতে আটক তাজুল নামে এক মাদকসেবীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে এলাকাবাসী থানা ঘেরাও করে ভাঙচুর চালায়। এ সময় পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশকিছু রাবার বুলেট ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করেছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, হারাগাছ থানা পুলিশ নয়াটারী এলাকায় অভিযান চালিয়ে গতকাল সোমবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তাজুল ইসলাম নামে এক মাদক সেবীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে রাইফেলের বাট দিয়ে তাজুলের মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলে সে মারা যায়।

এরপর খবর পেয়ে উত্তেজিত জনতা থানা ঘেরাও করে পুলিশের গাড়িসহ বিভিন্ন যানবাহন ভাঙচুর করতে থাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত ফোর্স ঘটনাস্থলে যায়।

এদিকে উত্তেজিত জনতাকে থামাতে ব্যর্থ হয়ে পুলিশ এক পর্যায়ে টিয়ার শেল ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। টিয়ার শেলের আঘাতে ৪ জন সাংবাদিকসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়। এ ঘটনায় হারাগাছ থানা জুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে হারাগাছ মেট্রোপলিটন থানার ওসি শওকত আলী জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।