প্রেসিডেন্টের কাছে ক্ষমা চাইলে খালেদা বিদেশ যেতে পারেন: হানিফ

বাংলাদেশে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে মেডিকেল বোর্ড আবারও চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশে নেয়ার সুপারিশ করেছে বলে তাঁর একজন ব্যক্তিগত চিকিৎসক জানিয়েছেন।

নতুন খবর হচ্ছে,খালেদা জিয়া একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি। সেই হিসেবে তিনি প্রেসিডেন্টের কাছে ক্ষমা চাইতে পারেন। প্রেসিডেন্ট তাকে ক্ষমা করে দিলেই তো তিনি বিদেশে যেতে পারেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘বিশ্ব সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও হলি আর্টিজান- মুম্বাই হামলা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, বিএনপি নিজেই এ নিয়ে রাজনীতি করছে। খালেদা জিয়ার সুস্থতার চেয়ে তাদের কাছে রাজনীতি বড়। সে জন্য খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় বাধা বিএনপিই।

এদিকে, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে দেখতে এভারকেয়ার হাসপাতালে গিয়েছেন মওলানা হামিদ খান ভাসানীর মেয়ে মাহমুদা খানম ভাসানী।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকালে তিনি হাসপাতালে আসেন।

এ সময় যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দীন টুকু এবং মওলানা ভাসানীর দৌহিত্র মাহমুদুল হক শানুও ছিলেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তারা ম্যাডামের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিতে এসেছেন।