বর্তমানে সবাই আওয়ামী লীগ: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দ্রুত উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। মানুষের মাথাপিছু আয় আর ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধিই যার বড় প্রমাণ।

নতুন খবর হচ্ছে, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের এবং স্বাধীনতার ইতিহাস জানাতে হবে। তাদেরকে যথাযথভাবে তৈরি করতে হবে। আমাদের সন্তানদের জানাতে হবে কেন স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল।

আজ মঙ্গলবার ঢাকায় এটিএন বাংলার অডিটোরিয়ামে ‘মুক্তিযোদ্ধা ফাউন্ডেশন’ এর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি একথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পরে বিভিন্ন সময়ে ইতিহাস বিকৃতিতে গভীর দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেন, আমাদের অভিভাবকদের সচেতন হতে হবে। সন্তানদেরকে আমাদের বিজয়েরর বীরত্বগাঁথা বলতে হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে অন্য কোনো সংগঠনের লোক পাই না সব আওয়ামী লীগ। আমাদের অনেক লোক এখন ঘোরের মধ্যে আছে, আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন পৃথিবীতে অনেক হত্যাকাণ্ড হয়েছে কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে হত্যাকাণ্ড ছিল একটু ভিন্ন রকম। বঙ্গবন্ধু এবং তার পরিবারকে শুধু হত্যা করা হয়নি, গোটা জাতিকে নিঃশেষ করে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। বাঙালির উন্নয়নকে পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চে ঐতিহাসিক ভাষণকে পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ভাষণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ছিল পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ভাষণ। তিনি ছিলেন শ্রেষ্ঠ শাসক এবং শ্রেষ্ঠ দেশপ্রেমিক।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে চলছে। দেশকে আরো শক্তিশালী করতে হবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজকে সম্পন্ন করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে।