বিদায় বেলায় সতীর্থদের ভালবাসায় সিক্ত তুষার ইমরান

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে তুষার ইমরান অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের রানমেশিন তুষার ইমরান সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছেন। ১২ হাজার রান ছুঁয়ে অবসর নেয়ার ইচ্ছা থাকলেও চোটের কারণে জাতীয় লিগের শেষ ম্যাচ খেলতে পারছেন না খুলনা বিভাগের ব্যাটার। তাতে ১১,৯৭২ রানে থামতে হচ্ছে তুষারকে।

না খেললেও দলের সঙ্গে আছেন তুষার। বিকেএসপিতে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর আগে তাকে দেয়া হয়েছে সংবর্ধনা।

চার দিনের ক্রিকেটে দশ হাজার রানও ছুঁতে পারেননি দেশের অন্য কেউ। সেখানে তুষারের রান ১২ হাজার থেকে ২৮ কম। লিগের চতুর্থ রাউন্ডে পায়ে চোট পাওয়ায় খেলতে পারেননি পরের রাউন্ড। ষষ্ঠ ও শেষ রাউন্ডেও তার নামা হয়নি।

বাংলাদেশের হয়ে ৪১টি ওয়ানডে ও পাঁচটি টেস্ট খেলেছেন তুষার। ২০০৭ সালে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর আর ডাক আসেনি তার। ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে নিয়মিত রান করে গেলেও নির্বাচকরা উপেক্ষাই করে গেছেন।

১৮২ ম্যাচে ৩০৭ ইনিংস ব্যাট করে তুষারের রান ১২ হাজার ছুঁইছুঁই। রয়েছে ৩২টি সেঞ্চুরি ও ৬৩টি টি ফিফটি। এ রেকর্ডের ধারেকাছে কেউ নে