বিশ্বকাপে ছক্কাবিহীন ব্যাটিংয়ের রেকর্ডে শীর্ষে লিটন

বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে লিটন অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, শেষ হয়ে গেছে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। এবার চলছে আসরের নানা পরিসংখ্যান নিয়ে কাঁটাছেঁড়া। তাতেই ধরা পড়ল, এবারের আসরের বিব্রতকর এক রেকর্ডের শীর্ষে আছেন দুই বাংলাদেশি ওপেনার নাঈম শেখ ও লিটন দাস।

ছক্কা না হাঁকিয়ে এবারের বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে কে কত বল খেলেছেন- সেই রেকর্ডে বল সংখ্যা তিন অঙ্ক আছে দুইজনেরই। তারা হলেন নাঈম শেখ ও লিটন দাস। নাঈম ১০৫ বল খেলে হাঁকাতে পারেননি কোনো ছক্কা। লিটন ছক্কাবিহীন বল খেলেছেন ১০৪টি।

তালিকার তৃতীয় স্থানে আছেন স্কটল্যান্ডের ম্যাট ক্রস, যার মোকাবেলা করা ছক্কাহীন বল ৮০টি। ৭৩ বল খেলে চতুর্থ স্থানে তার স্বদেশী ক্রিস গ্রিভস, যিনি প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে স্কটিশদের জয়ের নায়ক ছিলেন।

তালিকার পরের তিনটি নাম বেশ পরিচিত- স্টিভ স্মিথ (৭১ বল), কুইন্টন ডি কক (৬৪ বল) ও রস্টন চেজ (৫৬ বল)।

টি-টোয়েন্টিকে বলা হয় চার-ছক্কার খেলা। ছক্কা হাঁকানো কঠিন হলেও চার তো হাঁকানো যায়। কিন্তু চার না হাঁকিয়ে সবচেয়ে বেশি বল খেলে কয়েকজন আছেন বিব্রতকর রেকর্ডের মালিক হয়ে। স্কটল্যান্ডের ক্যালাম ম্যাককিওড ৪৬ বল খেলে কোনো বাউন্ডারি হাঁকাতে পারেননি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের লেন্ডল সিমন্স খেলেছেন ৪২ বল, হাঁকাতে পারেননি একটি চারও। নামিবিয়ার জ্যান ফ্রাইলিঙ্কেরও একই দশা!