বিশ্বকাপে বিশ্বাসের ঘাটতি ফুটে উঠেছে শরীরী ভাষায়: মুশফিক

বাংলাদশের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে মুশফিক অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, খেলায় জয় পরাজয় থাকবেই। তবে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে খুব উজ্জীবিত মনে হয়নি। শরীরী ভাষা খুব ভালো মনে হয়নি বাইরে থেকে দেখে। ড্রেসিং রুমের আবহ কি ঠিক আছে?

এক সাাৎকারে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম মেনে নিলেন, বিশ্বাসের ঘাটতি ছিল বিশ্বকাপে। সেটাই ফুটে উঠেছে শরীরী ভাষায়,‘ আসলে কোজ ম্যাচ যদি হারতে হয়, শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপে জেতা উচিত ছিল, কাছে গিয়ে জিততে না পারলে যে কোনো ড্রেসিং রুমের একটু খারাপ অবস্থা থাকে। ক্রিকেটারদের সাহস কমে যায়। বিশ্বাসে ঘাটতি থাকে। সবার মধ্যে নার্ভাসনেস থাকে।

আমরাও জানি, টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ এখনও ভারত-পাকিস্তান-ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মতো দলগুলির কাতারে যায়নি। এটা তো বললেই হবে না। দরকার ছিল মোমেন্টাম। সুপার টুয়েলভে যদি শুরুতে জিতে যেতাম, তাহলে চিত্র হয়তো ভিন্ন হতো। সেখানে আমরা যখন ঘুরে দাঁড়াতে পারিনি, বিশেষ করে আমি, সাকিব ও রিয়াদ ভাই, আমরা চেষ্টা করেও যখন পারিনি, তখন একটা সংশয় ঢুকে যায় যে আমাদের দিয়ে হয়তো হচ্ছে না।

সূত্র, কালের কণ্ঠ