ভাড়া নিয়ে তর্ক করায় ‘চলন্ত’ বাস থেকে ফেলে দেওয়া হলো শিক্ষককে

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন পরিবহন সংস্থা বিআরটিসি’র বাসে শিক্ষার্থীদের জন্য অর্ধেক ভাড়া কার্যকর করার ঘোষণা দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তবে মুদ্রার উল্টা পিটও আছে।

নতুন খবর হচ্ছে, চট্টগ্রামের বাড়তি বাস ভাড়া নিয়ে প্রতিবাদ করায় রহমত উল্লাহ নামে এক স্কুলশিক্ষককে চলন্ত বাস থেকে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজ শনিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালি থানার রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় ওই স্কুলশিক্ষককে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, রহমত উল্লাহ সদরঘাট এলাকার পিটিআই (প্রাইমারি ট্রেনিং ইনস্টিটিউট) প্রশিক্ষণার্থী। সকালে অক্সিজেন এলাকা থেকে পিটিআই যাওয়ার জন্য ওই বাসে উঠেন শিক্ষক রহমত উল্লাহ। বাসের হেলপার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছিলেন। এ ঘটনার প্রতিবাদ করেন স্কুলশিক্ষক রহমত উল্লাহ। এ নিয়ে হেলপার ও চালকের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। তিনি স্টেশন রোডের বটতলি এলাকায় নেমে যেতে চাইলে তাকে সেখানে না নামিয়ে কিছুটা সামনে নিয়ে পুরাতন রেলস্টেশন এলাকায় চলন্ত গাড়ি থেকে ফেলে দেয় বাসের হেলপার। এতে তিনি পায়ে ও মুখে আঘাত পান। পরে তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে ন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নেজাম উদ্দিন বলেন, একটি দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে দুই রকম বক্তব্য পাচ্ছি। ড্রাইভার-হেলপারকে আটক করতে পারলে বিস্তারিত বলতে পারব।