ভোট কেনাবেচা ঠেকাতে রাত জেগে ভোট পাহারা দিচ্ছেন তাঁরা

নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকবেই। পরাজয়ের শক্ত ভিত্তিই তৈরী করে দেবে কাঙ্খিত বিজয় অর্জনের প্রেরণা। অনেক প্রার্থী বলে থাকেন ফলাফল মেনে নেওয়ার মানসিকতা আছে। তবে বাস্তবতা ভিন্ন।

নতুন খবর হচ্ছে, আসন্ন নওগাঁর বদলগাছী উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রোববার (২৮ নভেম্বর) ৩য় ধাপে ৮টি ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

উপজেলার ৮টি ইউপিতে নিজ নিজ প্রার্থীর সমর্থকরা তাদের নিজ নিজ এলাকায় রাত জেগে ভোট পাহারা দিচ্ছেন। এসব ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে রয়েছে। সময় যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থী ও সমর্থকদের উৎকণ্ঠা ততটাই বাড়ছে। মাঠের ও ভোটের লড়াইয়ে কেউ কাউকে চুল পরিমাণ ছাড় দিচ্ছেন না।

সরেজমিনে শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার বিলাশবাড়ী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, সন্ধ্যার পর থেকেই স্ব স্ব প্রার্থীর সমর্থকরা তাদের এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে জোট বেঁধে পাহারা দিচ্ছেন। সেই সঙ্গে মোটরসাইকেল নিয়েও টহল দিতে দেখা যাচ্ছে অনেককে। অপরিচিত কাউকে দেখলে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে তিনি কার সমর্থক। এছাড়া নির্বাচনী এলাকাগুলোর দোকান-পাঠ, হাট-বাজার ইত্যাদি স্থানে একই আলোচনা ইউপি নির্বাচনে কে হচ্ছেন কোন এলাকার আগামী দিনের অভিভাবক।

চেয়ারম্যান প্রার্থীদের আলোচনার সঙ্গে সমান তালে আলোচনায় রয়েছে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য পদ প্রার্থীরা। রাত জেগে ভোট পাহারা দেয়া হচ্ছে কেন এমন প্রশ্নের জবাবে দুধকুড়ি গ্রামের ইউপি সদস্য প্রার্থী সানু ইসলামের সমর্থকরা বলেন, ভোটের আর মাত্র একদিন বাঁকি। তাই শেষ মুহূর্তে কেউ যেন তাদের পক্ষের ভোটারদের টাকার লোভ বা ভয়ভীতি দেখিয়ে স্বার্থ উদ্ধার করতে না পারে সে জন্যই এ পাহারা। কারণ আমরা চাই একজন ভালো মানুষ জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হয়ে আসুক।