স্বদেশে পাকিস্তানি পতাকা ওড়ানো রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিলঃ বাংলাদেশ যুব মৈত্রী

পাকিস্তান- বাংলাদেশের খেলা মানেই টানটান উত্তেজনা। খেলার মাঠে কোন দলই হার মেনে নিতে চায়না। তবে শেষ হাসি হাঁসতে হয় যে কোন এক দলকেই।

নতুন খবর হচ্ছে, স্বদেশে পাকিস্তানি পতাকা ওড়ানো ও জার্সি প্রদর্শন রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল বলে উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ যুব মৈত্রী। আজ সোমবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, স্বাধীনতার সূবর্ণজয়ন্তী চলাকালে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানি পতাকা ও জার্সি প্রদর্শনের মধ্যে রাজনৈতিক দূরভিসন্ধি রয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর সভাপতি সাব্বাহ আলী খান কলিন্স ও সাধারণ সম্পাদক মোতাসিম বিল্লাহ সানি ওই বিবৃতিতে বলেন, অতি সম্প্রতি বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট সিরিজের প্রথম খেলায় মিরপুর শেরে-ই-বাংলা নগর ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালে দর্শন গ্যালারিতে একদল পাকিস্তানপন্থী ভাড়াটে দর্শক পাকিস্তানি জার্সি গায়ে পাকিস্তানি পতাকা প্রদর্শন করেছে, যা সুপরিকল্পিত এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

তারা বলেন, ১৯৭১’এর মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের গণহত্যা এখনো বিস্মৃত হয়নি। একাত্তরে পাকিস্তান বাহিনী পরাজিত হলেও তাদের দোসররা এখনো সক্রিয়। পাকিস্তান এখনো নিঃশর্ত ক্ষমা চায়নি এবং সে সময়ের লুণ্ঠিত সকল সম্পদ ফেরত দেয়নি।