হতাশাগ্রস্ত হয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিল কুয়েট শিক্ষার্থী

আজ দুপুরে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) প্রখম বর্ষের এক শিক্ষার্থী। নিহত শিক্ষার্থী সুব্রত কুমার (১৯) কুয়েটের আর্কিটেকচার বিভাগের ছাত্র। তিনি টাঙ্গাইলের চন্দ্র কুমার পালের ছেলে।

আজ বুধবার (১৭ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে খুলনার খানজাহান আলী থানাধীন মাত্তমডাঙা এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। এই রুট দিয়ে যশোর থেকে খুলনাগামী কমিউটার ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন সুব্রত।

এ নিয়ে খানজাহান আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রবীর কুমার বিশ্বাস জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা করেছেন সুব্রত। তার মরদেহ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে কুয়েটের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন জানান, সুব্রত ছিল আর্কিটেকচার বিভাগের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী। খবর শুনে ওই বিভাগের শিক্ষকদের একটি টিম ঘটনাস্থানে পাঠানো হয়েছে। তবে আত্মহত্যার প্রকৃত কারণ এখনও জানা যায়নি।