২০২২ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ভাগ্য অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের হাতে

চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যাচ্ছেতাই। সুপার টুয়েলভে সব ম্যাচ হেরে শূন্য হাতে বিদায় নিয়েছে টাইগাররা। এতে শঙ্কায় পড়েছে আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মূল পর্বে খেলার। অনেকের ধারণা অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও প্রথম রাউন্ড খেলে উঠতে হবে মূল পর্বে।

সেক্ষেত্রে এখনও সরাসরি পরের আসরে মূল পর্বে খেলার সম্ভাবনা বেঁচে আছে মাহমুদউল্লাহ বাহিনীর। তবে এজন্য এখন তাকিয়ে থাকতে হবে চলমান বিশ্বকাপের দুটি ম্যাচের দিকে। ম্যাচ দুটি হলো- নিউজিল্যান্ড বনাম আফগানিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম অস্ট্রেলিয়া।

আইসিসির নিয়ম বলছে, অস্ট্রেলিয়া অথবা নিউজিল্যান্ডের দুই দেশের কোনো একটি জিতলেই ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে সরাসরি খেলবে বাংলাদেশ। আর এ দুটি দল হেরে গেলে বাংলাদেশকে আগামী আসরেও খেলতে হবে প্রাথমিক পর্বেই।

এদিকে আইসিসির নিয়মানুযায়ী, চলতি আসরের ফাইনালের দুই দল এবং ১৫ নভেম্বরে প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে থাকা ৬ দল সরাসরি খেলবে আগামী বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বে। বাকি চার দল আগামী আসরে খেলবে প্রথম রাউন্ডে।

সে হিসাবে ইংল্যান্ড, পাকিস্তান, ভারত, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার সুপার টুয়েলভে খেলা নিশ্চিত হয়ে গেছে এরই মধ্যে। সপ্তম ও অষ্টম দল হয়ে কোন দুটি দল সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করবে সেটাই এখন বিষয়।

সে হিসাব কষতে গেলে দেখা যাচ্ছে, শেষ ম্যাচে উইন্ডিজদের ২০ রানে হারালেও আগামী বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে খেলা নিশ্চিত শ্রীলংকার। কারণ ২৩০ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরে থাকা দাশুন শানাকার দল। এছাড়া এবার সুপার টুয়েলভে ওঠা স্কটল্যান্ড ও নামিবিয়ারও আগামী বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে খেলা নিশ্চিত।

তাহলে বাদ রইল আফগানিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ। র‌্যাংকিংয়ের ৬ নম্বরে থেকে বিশ্বকাপ শুরু করা বাংলাদেশ আসর শেষ করেছে ৯ নম্বরে থেকে। তাদের রেটিং পয়েন্ট এখন ২৩৪। আর এই মুহূর্তে বাংলাদেশ থেকে এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে সাত নম্বরে আছে আফগানিস্তান।