২০ মিনিট দেরি হলে মরেও যেতে পারতাম: রিজওয়ান

পাকিস্তানের ক্রিকেটকে আজকের এই উচ্চ পর্যায়ে নিয়ে আসতে যে কয়জন ক্রিকেটার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁর মধ্যে রিজওয়ান অন্যতম। এই পর্যন্ত অনেক রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই তারকা ক্রিকেটার।

নতুন খবর হচ্ছে, সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মাঝে পাকিস্তানি ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ানেরর আইসিইউতে ভর্তি থাকার ঘটনা এখন আর কারও অজানা নয়। সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামার ২৪ ঘণ্টা আগেই আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন রিজওয়ান। বুকে মারাত্মক সংক্রমণ হয়েছিল তার। হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেরি হলে নাকি মৃত্যুও হতে পারত! রিজওয়ান নিজেই এক সাক্ষাতকারে এই তথ্য জানিয়েছেন।

‘ক্রিকেট পাকিস্তান’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হাসপাতালের অভিজ্ঞতা জানান রিজওয়ান, ‘যখন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তখন আমার শ্বাস ঠিকঠাক চলছিল না। চিকিৎসকরা বলেন, আমার শ্বাসনালী বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। প্রথমে বলা হয় পর দিন সকালে আমাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। পরে বলা হয় সকালে নয়, সন্ধ্যায় ছাড়া হবে। চিকিৎসকরা বলেন, হাসপাতালে নিয়ে যেতে ২০ মিনিট দেরি হলে আমার শ্বাসনালী ও ফুসফুস কাজ করা বন্ধ করে দিতে পারত।’

দুবাইয়ের হাসপাতালে রিজওয়ানকে সুস্থ করে তোলেন ভারতীয় চিকিৎসক সাহির সাইনালবদিন। চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানিয়ে রিজওয়ান বলেন, ‘চিকিৎসকরা আমাক ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রেখেছিলেন। আমি শুধু ভাবছিলাম, সেমিফাইনাল খেলতে পারব কি না। চিকিৎসকরা আমাকে বলেন, আমি খেলার অবস্থায় নেই। সে কথা শুনে আমি ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।