ঈদের কেনাকাটা শেষে বাড়ি ফেরা হল না দুই সহোদরের

এবার সাতক্ষীরার তালায় ঈদের কেনাকাটা করে বাড়ি ফেরার সময় পৃথক দুটি দুঘর্টনায় তিনজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ২২ এপ্রিল রাতে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কের নোয়াপাড়া ও খলিশখালীর হাজরাপাড়া নামক স্থানে উক্ত দুর্ঘটনা সংঘটিত হয়।

এদিকে তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরীর করিম নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে বলেন, তালা উপজেলার দুই সহোদর পাটকেলঘাটা থানাধীন এলাকায় মোটরসাইকেল দুঘর্টনায় নিহত হয়। অপর ঘটনায় মোটরবাইক কর্তৃক ভ্যানে মেরে দিলে ভ্যানআরোহী নিহত হয়।

তালার হাজরাপাড়ার দুঘর্টানায় আহত সুজন গাজী জানান, ঈদের কেনাকাটা করে সন্ধ্যায় তারা তিনজন মোটরসাইকেলে চড়ে বাড়ি ফিরছিল। পথিমধ্যে হাজরাপাড়া নামকস্থানে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ ঘটনায় সুজন গাজীসহ তালার মাগুরা গ্রামের

আসাদ মোড়লের দুই ছেলে ইমরান হোসেন (১৯) ও রিফাত হোসেন (১৬) গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে ইমরান হোসেনের মৃত্যু হয়। তার অপর ভাই রিফাত হোসেনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে তারও মৃত্যু হয়।

আজ সকালে দুই ভাইয়ের মৃরদেহ পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। আহত সুজন গাজী একই গ্রামের মিঠু গাজির ছেলে। নিহতদের ময়না তদন্ত শেষ হলেই শনিবার দিনের মধ্যে দাফন কাজ সম্পন্ন হবে বলে স্বজনরা জানান।

এদিকে অপর ঘটনায় নিহত শেখ শাহিন (২৬) তালা উপজেলার ধলবাড়িয়া এলাকার আব্দুল বারিক শেখের ছেলে। সে ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করতো। মাস চারেক আগে তার বিয়ে হয়।