সরকার নারী-পুরুষের সমান অংশগ্রহণে স্মার্ট দেশ গড়বে: পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বৈষম্যমুক্ত ‘সোনার বাংলা’ গড়তে চেয়েছিলেন। শেখ হাসিনার সরকার নারী-পুরুষের সমান অংশগ্রহণে সোনার বাংলার আধুনিক রূপ হিসেবে স্মার্ট দেশ গড়বে।

তিনি আজ বুধবার নাটোরের সিংড়ায় তার দপ্তরে আইডিয়া প্রকল্পের আওতায় ৩৭ জন স্মার্ট নারী উদ্যোক্তার মাঝে ৫০ হাজার টাকা করে অনুদানের চেক বিতরণকালে এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে নারীরা বাড়ির কাজে নিরলসভাবে পরিশ্রম করেন। দেশের ৫০০ বিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির অবস্থানে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে কাজ করছে সরকার। প্রথম পর্যায়ে সারাদেশে দুই হাজার স্মার্ট নারী উদ্যোক্তার প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে আরো ৫ হাজার নারী উদ্যোক্তাকে জনপ্রতি ৫০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় ‘হার পাওয়ার’ বা ‘নারী শক্তি’ প্রকল্পের আওতায় ২৫ হাজার নারী উদ্যোক্তা তৈরীর উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে। এই কার্যক্রমের আওতায় নারী উদ্যোক্তাদের তিন মাস প্রশিক্ষণের পরে তিন মাস ইন্টার্ণীশীপ সমাপন শেষে ২০ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করা হবে। অর্থাৎ স্মার্ট নারী উদ্যোক্তাদের আমরা প্রশিক্ষণ, পুঁজি এবং প্রযুক্তি প্রদান করবো।

তিনি বলেন, ‘আমরা চাই মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরের নারীদের মত এদেশের নারীরা দেশের মূল অর্থনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত হয়ে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। আমাদের দেশের নারীরা পাকিস্তান, আফগানিস্তানের মত ব্যর্থ দেশের নারীদের মত কুসংস্কাচ্ছন্ন এবং অনগ্রসর থাকবেন না। পুরুষের পাশাপাশি নারীদের সমান অংশগ্রহনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা পাবে।’

পলক বলেন, পর পর তিনবার এদেশের জনগণ নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ায় দেশের উন্নয়ন নিশ্চিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠা পেয়েছে ডিজিটাল বাংলাদেশ। গ্রামীণ সড়কের উন্নয়ন ও সংযোগ, সকল জনপদে বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সুবিধার কারনে গ্রামগুলো জেগে উঠেছে। ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে জনগণ কাঙ্খিত নাগরিক সেবা পাচ্ছে। জীবন এখন অনেক সহজ ও সুন্দর।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহমুদা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট শেখ ওহিদুর রহমান।সূত্র- বাসস।