১০ মাস পায়ে হেঁটে মসজিদুল আকসায় ফরাসি তরুণ

এবার একাধারে ১০ মাস হেঁটে ফিলিস্তিনের পবিত্র মসজিদুল আকসায় পৌঁছেছেন ২৬ বছর বয়সী এক ফরাসি মুসলিম তরুণ। নিল ডক্সোইস নামের এই তরুণকে এখানে পৌঁছতে তিন হাজার ৯০০ কিলোমিটার (দুই হাজার ৪২৩ মাইল) পথ হাঁটতে হয়।

এদিকে আনাদোলু এজেন্সি সূত্রে জানা যায়, আলজেরিয়ান বংশোদ্ভূত এই মুসলিম পবিত্র রমজানে মসজিদুল আকসায় পৌঁছতে ১০ মাস আগে ফ্রান্স থেকে হেঁটে রওনা হন। ফিলিস্তিনের অধিকৃত জেরুজালেমে পৌঁছতে তাকে স্লোভেনিয়া, ক্রোয়েশিয়া, বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, মন্টিনিগ্রো, আলবেনিয়া, গ্রিস, সাইপ্রাস, জর্দানসহ ১০টি দেশ অতিক্রম করতে হয়।

বিভিন্ন দেশের ভ্রমণের কথা উল্লেখ করে নিল ডক্সোইস বলেন, ‘জেরুজালেম পৌঁছতে আমাকে বিভিন্ন দেশ অতিক্রম করতে হয়। অনেক সময় বিভিন্ন অঞ্চলের ঠাণ্ডা আবহাওয়ার মধ্যে হাঁটতে হয়েছে। স্থানীয়দের সহায়তায় নিরাপদে অনেক স্থান পার হয়েছি। তাদের আতিথেয়তা ও সহযোগিতা ছাড়া যাত্রা অব্যাহত রাখা সম্ভব ছিল না।’

জেরুজালেমে পৌঁছলে ডক্সাইসকে শুভেচ্ছা জানাতে আসেন ফিলিস্তিনিরা। সব বয়সী শিশু-কিশোর ও নারী-পুরুষ তাকে একনজর দেখতে ভিড় করে। সবার সংবর্ধনা পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েন ফরাসি তরুণ। তিনি বলেন, ‘মানুষ আমাকে আন্তরিক আতিথেয়তায় স্বাগত জানায়। এখানে আসতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত, যা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। অবাক করা বিষয় হলো, অনেক ফিলিস্তিনি আমাকে তাদের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।’

ডক্সাইস আরো বলেন, ‘চার বছর আগেও এখানে এসেছিলাম। এখানকার পরিস্থিতি সম্পর্কে সবাই অবগত। এখানে আমার অনেক ফিলিস্তিনি বন্ধু রয়েছে, যারা এখানে আসতে পারে না। তাই আমার ভ্রমণ নিয়ে আমার মা খুবই চিন্তিত ছিলেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিওতে আমাকে দেখার পর আমার জন্য তিনি গর্বিত বলে জানান।’

ফিলিস্তিন ভ্রমণের পর আগামী দেড় মাসের মধ্যে মক্কায় যাবেন এবং পবিত্র হজ পালন করবেন বলে জানান ফরাসি এই তরুণ। পরবর্তী হজযাত্রার জন্য তিনি সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন। সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি